আজকাল ওয়েবডেস্ক: কম্বোডিয়ায় যেতে চান?‌ সিয়েম রিপের মতো মন্দিরে ঘুরতে চান?‌ তাহলে আর আগের সেই সস্তার কম্বোডিয়া ট্রিপের কথা ভুলে যান। কম্বোডিয়ায় যেতে গেলে নিজের সৎকারের খরচের কথাটা আগে থেকে ভেবে রাখুন। মোট তিন হাজার ডলার অতিরিক্ত সঙ্গে রাখুন। ভারতীয় টাকায় যার মূল্য দু’‌লক্ষ ২৮ হাজার ৪০০ টাকা। পৃথিবীতে এখন যাই ভাবনাচিন্তা করা হচ্ছে, সবের কেন্দ্রে রয়েছে একটি ভাইরাস। আপনি ছুটিতে বেড়াতে গেলেন, আর আপনার কোভিড পজিটিভ ধরা পড়ল, তার খরচটা আগে থেকেই আপনার কাছ থেকে নিয়ে রাখা হবে। যা যা খরচ করার করে বাকি টাকা আপনি ফেরতও পেয়ে যাবেন। মনে রাখবেন, এরা কিন্তু আপনার সৎকার করার পরেও বাকি টাকা ঠিক ফেরত দেবে। মহামারীর শুরুতে কম্বোডিয়ার প্রশাসন প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল, তাদের দেশে থাকাকালীন কোনও বিদেশির কোভিড ধরা পড়লে, তারা বিনামূল্যে তাঁর চিকিৎসা করাবে। কিন্তু এখন নতুন করে কেউ সে দেশে ঘুরতে গেলে বিমানবন্দরে কমপক্ষে ৩৮ লক্ষ টাকার স্বাস্থ্যবিমার প্রমাণ দেখাতে হবে এবং জমা দিতে হবে দু’‌লক্ষ ২৮ হাজার ৪০০ টাকা। নগদে বা ক্রেডিট কার্ডে সেই টাকা আপনি দিতে পারেন।

তিনটি পরিস্থিতির কথা তারা জানিয়েছেন।
প্রথমত, বিমানবন্দরে পৌঁছালে আপনাকে একটি কোভিড স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নিয়ে যাওয়া হবে। যার জন্য আপনাকে দিতে হবে ৩৮০ টাকা। আপনার কোভিড পরীক্ষা হবে যার মূল্য ৭,৬১০ টাকা। একদিনের জন্য আপনাকে কোয়ারেন্টাইন করা হবে একটি হোটেলে, যেখানে আপনার খসবে ২,২৮০ টাকা। একই খরচ হবে আপনার খাওয়া দাওয়ায়। আপনি কোভিড পরীক্ষা না করালেও আপনার জমা দেওয়া টাকা থেকে ১২,৫৬০ টাকা কেটে নেওয়া হবে। বাকিটা আপনি ফেরত পাবেন দেশ ছেড়ে যাওয়ার সময়ে।
দ্বিতীয়ত, আপনি যে বিমানে করে এসেছেন, সেখানে কারওর শরীরে করোনার সন্ধান পাওয়া গেলে আপনি সহ সমস্ত যাত্রীকে ১৪ দিনের জন্য কোয়ারেন্টাইন করা হবে। এর আগের খরচগুলির সঙ্গে এবারে যোগ হবে আরও পাঁচটি খাতের খরচ। ২,২৮০ টাকার ঘরভাড়া। ২,২৮০ টাকা খাওয়ার খরচ। ১,১৪০ টাকা জামাকাপড় ধোওয়া ও পরিষ্কার করার খরচ। ৪৬০ টাকা দিতে হবে সেই স্বাস্থ্যকর্মীকে যিনি আপনার দেখভাল করবেন। কোয়ারেন্টাইনের নিরাপত্তারক্ষীর জন্য ২৩০ টাকা। এবং ১৪ দিনের প্রত্যেকদিন এই খরচগুলি বহন করতে হবে। যোগ করলে মোটামুটি দাঁড়ায় ৯৭ হাজার ৫২০ টাকা। এবং এরপর রয়েছে কোভিড পরীক্ষা। বাকি টাকা দেশের মাটি ছাড়ার সময়ে আপনাকে দিয়ে দেওয়া হবে।
তৃতীয়ত, আপনি যদি সেদেশে পা দিতেই কোভিড পজিটিভ ধরা পড়েন, তাহলে তো আর কথাই নেই। স্বাস্থ্যকেন্দ্রে কোভিড পরীক্ষা পর্যন্ত খরচ একই থাকবে। এবারে আপনাকে দিতে হবে হাসপাতালের ভাড়া। যা প্রতিদিন ২,২৮০ টাকা। পরিষেবা ও ওষুধপাতির খরচ হল ১১,৪২০ টাকা। আপনার কমপক্ষে চারবার কোভিড পরীক্ষা হবে। তার খরচ পড়বে সবমিলিয়ে ৩০,৪৫০ টাকা। এছাড়া যদি বাড়তি কোনও রোগ থাকে, তাহলে চিকিৎসকের পরামর্শের জন্য আবার আলাদা খরচ। যদি আপনি সুস্থ না হতে পারেন, তাহলে আপনার সৎকারের জন্য ১,১৪,২০০ টাকা বাড়তি নিয়ে নেবে আপনার জমা দেওয়া টাকা থেকে। যদিও তখন আর কত গেল কত না গেল কী আর যায় আসবে।
নিজের সৎকারের খরচ এবার থেকে বাজেটে যোগ করে তবেই কম্বোডিয়ায় যাবেন। এমন ট্রিপ প্ল্যান করার মজাই তো আলাদা!‌ 

জনপ্রিয়

Back To Top