আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ কদিন আগেই, মানে সপ্তাহ দুয়েক আগে একটি ভিডিও জনপ্রিয় হয় সোশ্যাল নেটওয়ার্কে। সেই ভাইরাল ভিডিওতে দেখা গিয়েছিল, একজন পড়ুয়া রাস্তার আলোর তলায় বসে পড়াশোনা করছে। যেমন কথিত আছে বিদ্যাসাগর রাস্তার আলোয় বসে পড়াশোনা করতেন। তেমনই এই ভিডিওতে দেখা গিয়েছিল। এরপরেই সেটি নজরে পড়ে পেরুর এক ব্যবসায়ীর। 
ভিডিওটি দেখার পর স্থির থাকতে পারেননি তিনি। বাহরিনের বাসিন্দা ইউসুফ আহমেদ মুবারক চলে আসেন পেরুতে। জানতে পারেন, ওই পড়ুয়ার নাম ভিক্টর। তার সঙ্গে দেখা করেন ইউসুফ। কথা বলে জানতে পারেন, চরম অর্থ কষ্টে ভুগছে ভিক্টকের পরিবার। সঙ্গে সঙ্গে ইউসুফ একটি দোতলা বাড়ি বানিয়ে দেন ভিক্টরের জন্য। পাশাপাশি, নগদ বেশ কিছু টাকা তিনি দেন ইউসুফের মা কে। যাতে পিতৃহীন ভিক্টরের পরিবার একটি স্থায়ী উপার্জনের সুযোগ পায়। ইউসুফের এই কর্মকাণ্ডও ইন্টারনেটে ভাইরাল হয়। ভিক্টর জানায়, সেদিন অনেক হোমওয়ার্ক ছিল, তাই বাড়িতে বিদ্যুৎ না থাকায় রাস্তায় বসেই কাজ সারতে হয়েছিল। মাত্র ১১ বছর বয়সেই বাস্তবতার মুখোমুখি হয়েছিল সে।     

জনপ্রিয়

Back To Top