‌আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ রাষ্ট্রপতি মানেই গুরুগম্ভীর আচরণ আর গম্ভীর কথা?‌ বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ এই ধারণাকে ভুল প্রমাণ করেন। বারংবার নানা অনুষ্ঠানে হাস্যরসাত্মক মন্তব্য করতে দেখা যায় তাঁেক। কিন্তু এবার প্রিয়াঙ্কা চোপড়াকে নিয়ে অশ্লীল ইঙ্গিতপূর্ণ রসিকতা করে বিতর্কে জড়ালেন হামিদ। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাবর্তন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি হিসেবে গিয়েছিলেন হামিদ। বক্তব্য রাখার সময় হামিদ বলেন, ‘‌প্রিয়াঙ্কা চোপড়া রোহিঙ্গাদের সঙ্গে দেখা করার জন্য বাংলাদেশে এসেছিলেন। সেকথা আমি আমার স্ত্রী–কে জানিয়েছিলাম। আমার স্ত্রী প্রধানমন্ত্রীকে ফোন করে বলেছে, প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার বঙ্গভবনে আসার কী দরকার। আমার মনে হয় এটা একটা যড়যন্ত্র। কারণ শেষ পর্যন্ত প্রিয়াঙ্কা চোপড়া বঙ্গভবনে আসেননি।’‌ এই কথা বলার সময় অনুষ্ঠানে দর্শকদের মধ্যে হাসির রোল ওঠে। সম্প্রতি প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার আমেরিকান গায়ক নিক জোনসের সাথে বাগদান হয়েছে। সেটা নিয়েও তিনি মন্তব্য করেন। কিন্তু এই মন্তব্য নেটিজেনদের অনেকেই ভালভাবে নেননি। কেউ লিখেছেন, ‘‌রাষ্ট্রপতির মতো পদে থেকে এধরনের চটুল মন্তব্য করা যায় না। এতে দেশেরই অসম্মান হয়।’‌ আবার কারও মতে, ‘‌হাস্যরস এক জিনিস আর খারাপ রসিকতা অন্য জিনিস। রাষ্ট্রপতির এধরনের মন্তব্য দুঃখজনক।’‌

জনপ্রিয়

Back To Top