আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ গবেষণায় উঠে এল চমকপ্রদ তথ্য। বাঁশের তৈরি ব্যাট নাকি কাশ্মীরি বা ইংলিশ উইলোর থেকে বেশি রান দিচ্ছে ব্যাটসম্যানদের!‌ 
কেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষণা বলছে, বাঁশের ব্যাট উইলোর চেয়ে সাশ্রয়কর এবং এতে ‍‘সুইটস্পট’ (ব্যাটের যেখানে বল লাগলে চার–ছয় হয়) নাকি বেশি। এই গবেষণায় যুক্ত ছিলেন দর্শিল শাহ এবং বেন টিঙ্কলার–ডেভিস। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যমে দর্শিল বলেছেন, ‍‘‍বাঁশের ব্যাটে ‍‘সুইট স্পট এতটাই বেশি যে, ইয়র্কারে সহজেই চার–ছয় মারা যায়। সব ধরনের শট বেরিয়ে আসে এই বাঁশের ব্যাট থেকে।’‌ আর এক ব্রিটিশ সংবাদপত্রের খবর অনুযায়ী, ‘‌ইংলিশ উইলোর সরবরাহ এখন কমে আসছে। একটা গাছ রোপণের পরে তা থেকে ব্যাট পেতে ১৫ বছর সময় লাগে। তাও আবার ব্যাট প্রস্তুতের সময় একটি গাছের কাঠের ১৫ থেকে ৩০ শতাংশ অপচয় হয়।’ এরপরই দর্শিলের কথায়, ‘‌বাঁশ অনেক সস্তা। পাওয়া যায় প্রচুর। দ্রুত বাড়ে এবং টেকসই। বাঁশ গাছ রোপণের পরে সেখান থেকে ব্যাট প্রস্তুত করা যায়, সাত বছরের মধ্যেই। চীন, জাপান, দক্ষিণ আমেরিকার বিভিন্ন দেশে তাই এখন বাঁশের ব্যাটই ব্যবহৃত হচ্ছে।’ গবেষকরা বলছেন, বাঁশের তৈরি ব্যাট অনেক বেশি শক্ত। 
তবে বাঁশের ব্যাট তৈরি হলেও তা আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের স্বীকৃতি মিলবে কিনা সময়ই বলবে। কারণ আইসিসি–র নিয়মানুযায়ী গাছের কাঠ থেকে তৈরি ব্যাটই ব্যবহার করা যায় আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে। 


 

জনপ্রিয়

Back To Top