আজকাল ওয়েবডেস্ক: তাদের কোভিড প্রতিষেধকের সুরক্ষা প্রশ্নচিহ্নের মুখে পড়ে গিয়েছে। তাই বৃহস্পতিবার অ্যাস্ট্রাজেনেকার সিইও পাস্কাল সোরিওট জানালেন, ওষুধের সুরক্ষাচক্র বুঝতে তাঁরা বিশ্বজুড়ে অতিরিক্ত পরীক্ষামূলক প্রয়োগ শুরু করবেন। নতুন প্রয়োগে কম ডোজ দিয়ে পরীক্ষা করা হবে। কারণ পূর্ণ ডোজের থেকে কম ডোজ ভালো ফল করেছে। সোরিওট বলেছেন, নতুন পরীক্ষা আরও দ্রুত হবে সেজন্য কম মানুষের উপর প্রয়োগ করা হবে। এই অতিরিক্ত পরীক্ষামূলক প্রয়োগ ইংল্যান্ড এবং ইওরোপের অনুমোদন পাবে সেটা তিনি আশা করেননি বলে জানালেন সোরিওট। অন্য দেশের সমীক্ষার উপর ভিত্তি করে আমেরিকার ফুড অ্যান্ড ড্রাগস অ্যাডমিনিস্ট্রেশন অনুমোদন দেবে না এবং সেকারণে সেখান থেকে অনুমোদন পাওয়া দীর্ঘকালীন ঘটনা। এবছরের শেষের দিকে কিছু কিছু দেশে এটার বৈধতাকরণের আশা করছেন তাঁরা বলে জানান সোরিওট। প্রতিষেধক নিয়ে বিভ্রান্তি তৈরি হওয়ার পরই অ্যাস্ট্রাজেনেকা এবং কোম্পানির সিইও বিশ্ব জোড়া প্রশ্নের মুখে পড়েছেন। কারণ স্থানীয় সময় সোমবার অ্যাস্ট্রাজেনেকার পার্টনার, অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় বলেছিল, ওই প্রতিষেধক কম মাত্রায় দিলে ৯০ শতাংশ রোগমুক্তি এবং পূর্ণ মাত্রায় দিলে ৬২ শতাংশ রোগমুক্তি হয়। যা প্রশ্নের মুখে ঠেলে দিয়েছে ওই ওষুধকে।  

জনপ্রিয়

Back To Top