আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ কোভিড টিকা নিয়ে এখনও সাধারণ মানুষের ভয়, সংশয় কাটেনি। ফলস্বরূপ বাজারে ছড়াচ্ছে গুজব। শুধু ভারতে নয়, গোটা বিশ্বজুড়েই এই ছবি দেখা গেছে সম্প্রতি। সাধারণ মানুষের আতঙ্ক কাটাতে বিশ্বজুড়ে বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রনেতারাই এগিয়ে এসে কোভিড ভ্যাকসিনের প্রথম ডোজ নিয়েছেন। 
আমেরিকায় প্রকাশ্যে করোনা টিকার ডোজ নিয়েছিলেন ভাবী মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। গোটা বিষয়টি ক্যামেরাবন্দি করে সরাসরি সম্প্রচার করা হয় সংবাদমাধ্যমে। তাঁকে দেখে ভ্যাকসিন নিতে এগিয়ে এসেছেন তিন প্রাক্তন মার্কিন প্রেসিডেন্ট– বারাক ওবামা, জর্জ ডব্লু বুশ, বিল ক্লিনটন। প্রকাশ্যে টিকা নিয়েছেন মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্সও এবং হাউস অফ রিপ্রেজেনটেটিভের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসি। 
টিকার প্রথম ডোজ নিয়েছেন ইজরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিহাহু। বলেছেন, ‘‌আমি দৃষ্টান্ত তৈরি করতে চাই। দেশবাসীকে টিকা দেওয়ার আগে আমায় টিকা দেওয়া হোক।’‌ শুরুতে কোভিড টিকা নিয়েছেন সৌদির যুবরাজ মহম্মদ বিন সলমন। চীনের সিনোভ্যাক বায়োটেকের টিকাকে ব্যবহারের জন্য সম্প্রতি ছাড়পত্র দিয়েছে ইন্দোনেশিয়া। প্রেসিডেন্ট জোকো উইডোডো জানান, ‘‌টিকা যে নিরাপদ এবং বৈধ, তা নিশ্চিত করতে আমিই প্রথম ডোজ নেব।’‌ রাজপ্রাসাদে বসে নোভেল করোনাভাইরাসের প্রতিষেধক নিয়ে নজির গড়েছেন ব্রিটেনের রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ এবং তাঁর স্বামী প্রিন্স ফিলিপ। রানি এবং তাঁর স্বামী, দু’জনেই নবতিপর। প্রিন্স ফিলিপ আবার এ বছর ১০০ বছর পূর্ণ করবেন। প্রতিষেধক নিয়ে ব্রিটেনবাসীর সংশয় দূর করতেই তাঁরা এমন সাহসী‌ পদক্ষেপ করেছেন বলে জানা গিয়েছে। 
ভারতেও স্বাভাবিকভাবেই সেই দাবি উঠেছে। বিহারের আরজেডি বিধায়ক তেজপ্রতাপ যাদব বলেন, ‘টিকাকরণ কর্মসূচির সূচনায় করোনা টিকার প্রথম ডোজটি নেওয়া উচিত ‌নরেন্দ্র মোদির। এতে টিকা নিতে সাহস পাবে গোটা দেশবাসী।’‌ 
 

জনপ্রিয়

Back To Top