আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ অশনি সংকেত মিলছে আলাস্কা থেকে। কারণ আলাস্কার ‘বিয়ার’ হিমবাহ গত ১১ মাসে দ্রুততার সঙ্গে গলেছে। ১১ মাসে ১ কিলোমিটার। ন্যাশনাল পার্ক সার্ভিসের দেওয়া এই পরিসংখ্যান থেকে জানা গিয়েছে, এ যেন বুদবুদ আঙুল দিয়ে ফাটিয়ে দেওয়ার মতো। একবার ফাটালে ক্রমাগত চুপসে যেতে থাকে। বরফের গলনের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে সমুদ্রের জলস্তর যাতে বিপদ বাড়তে চলেছে আরও।
মার্কিন ভূতত্ত্ব সর্বেক্ষণ সংস্থার হিমবাহ বিশেষজ্ঞ লুই স্যাস ও শাদ ও’ নিল গবেষণায় দেখেছেন, যেভাবে জুনোর দক্ষিণ–পূর্ব দিকে ‘টাকু’ হিমবাহের ক্ষয় হচ্ছে তাতে বিশাল বরফের চাঁই ভাঙতে শুরু করবে তার দেহ থেকে। আর তাতেই আরও বাড়বে সমুদ্রের জলস্তর। ইতিমধ্যেই আলাস্কার উষ্ণতম বছরের তকমা পেতে চলেছে ২০১৯। স্যাস জানালেন, তাপমাত্রা বৃদ্ধির জেরে আলাস্কার রাজধানী জুনোর ‘লেমন ক্রিক’ হিমবাহ এই নিয়ে টানা দু’বছর এতটাই গলেছে যা রেকর্ড। এই গলন শুরু হয়েছে হিমবাহের চূড়ো থেকে। 
অতীতের এক সমীক্ষায় দেখা গিয়েছিল, বিশ্বের সমুদ্রস্তর বৃদ্ধির ক্ষেত্রে অন্তত সাত শতাংশ জলের জোগান দেয় এই আলাস্কার হিমবাহ। এখন সেই হিমবাহের গলন আরও বাড়লে তার পরিণতি কোথায় দাঁড়াবে তা নিয়েই চিন্তিত বিশেষজ্ঞরা।

জনপ্রিয়

Back To Top