আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠন তালিবান। বিশ্ববাসী কাছে এই নামেই পরিচিত তারা। কালের নিয়মে এবার বোধ হয় রাজনৈতিক দলের স্বীকৃতি পেতে চলেছে তালিবানরা। এমনই ইঙ্গিত মিলেছে আফগানিস্থানের প্রেসিডেন্ট আসরাফ ঘানির বয়ানে। 
গত কয়েক বছরে অনেকটাই দুর্বল হয়েছে তালিবানরা। জঙ্গি কার্যকলাপ ছেড়ে সরকারের সঙ্গে শান্তি আলোচনায় বসার আর্জি জানিয়েছে একাধিক তালিবান নেতা। গত ১৬ বছর ধরে আফগানিস্থানের বুকে যে জঙ্গি কার্যকলাপ তারা চালিয়েছে সেটা থেকে সরে আসতে চাইছে। সেকারণেই বার বার আলোচনায় বসার আর্জি। তাই বোধ হয় সুর নরম করছে আফগান সরকারও। দেশে শান্তি ফেরাতে আলিবানদের সঙ্গে যে আলোচনায় বসা জরুরি তা বিলক্ষণ জানেন ঘানি। পাশ্চিত্যের দেশের সাহায্য নিয়ে বেশি দিন দেশে যে শান্তি টিকিয়ে রাখা যায় না তা গত কয়েকটি হামলা ও বিস্ফোরণ বুঝিয়ে দিয়েছে। এবার তাই নতুন উদ্যোমে নতুন পরিকল্পনা নিয়ে তালিবানদের সঙ্গে আলোচনায় বসতে চাইছে আফগান সরকার। সেকারণে জঙ্গি সংগঠনের সঙ্গে নিঃশর্ত আলোচনায় বসার ইচ্ছে প্রকাশ করেছেন তিনি। এমনকী ঘানি জানিয়েছেন, সংঘর্ষ বিরতি এবং জেলে তালিবান জঙ্গিদের মুক্তি দিতেও তিনি প্রস্তুত। এমনকী প্রয়োজনে সংবিধান সংশোধন করতেও প্রস্তুত বলে জানিয়েছেন। আন্তর্জাতিক মঞ্চে নিজের এই পরিকল্পনার কথাও জানিয়েছেন ঘানি। 
সূত্রের খবর সেখানেই নাকি ঘানি তালিবানদের রাজনৈতিক দলের মর্যাদা দেওয়ার পরিকল্পনার কথা জানিয়েছেন। কারণ এতদিন তালিবানদের জঙ্গি বলে আলোচনায় বসার প্রস্তাব বারে বারে খারিজ করে দিয়েছিলেন আফগান প্রেসিডেন্ট। 
তালিবানরা কিন্তু সরাসরি কাবুলে কোনও শান্তি আলোচনায় বসতে রাজি নয়। তারা আমেরিকাকে একাধিকবার শান্তি আলোচনায় বসার আর্জি জানিয়েছে। সেই প্রেক্ষিতেই ঘানি নাকি জানিয়েছেন তালিবানরা যদি আলোচনায় বসতে রাজি হয় তাহলে তাদের সংঘর্ষ বিরতি করতে হবে তার পরিবর্তে আফগান সরকার তাঁদের রাজনৈতিক দলের মর্যাদা দেবে। তালিবান জঙ্গি নেতাদের নামও তাহলে কালো তালিকা থেকে বাদ দেওয়া হবে। সূত্রের খবর ঘানির এই প্রস্তাবে রাজি হয়েছে তালিবান। 

জনপ্রিয়

Back To Top