আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ সিনেমার দৃশ্যকেও হার মানায় এই ঘটনা। ব্রিটিশ মডেলকে ইতালি থেকে অপহরণ করে তাঁকে মাদক দিয়ে অচৈতন্য করে স্যুটকেসে ভরে যৌন দাসী হিসাবে বিক্রি করার অভিযোগ উঠল। যদিও এই ঘটনাটি ঘটেছে গত বছর। কিন্তু আদালতে এই মামলার শুনানি চলাকালীন শিহরিত করা এই কাহিনীটি উঠে আসে। 
সূত্রের খবর, এই ঘটনায় অভিযুক্ত ৩০ বছরের লুকাজ পাওয়েল হার্বা নামে এক যুবককে পুলিস গ্রেপ্তার করে। আদালতেই ইতালির তদন্তকারী অফিসার ব্রিটিশ মডেল ক্লোয়ি আয়লিংয়ের হাড়হিম করা অপহরণের ঘটনা বর্ণনা করেন। ফটোশুটের নাম করে গত বছরের জুলাইতে ওই মডেলকে অপহরণ করে লুকাজ। অভিযুক্ত ইংল্যান্ডের বাসিন্দা। ইতালির মিলান থেকে ওই মডেলকে অপহরণ করা হয়েছিল বলে জানায় ইতালি পুলিস।  
ইতালি পুলিসকে ২০ বছরের ওই মডেল নিজের অপহরণের ঘটনা বর্ণনা করতে গিয়ে বলেন, ‘‌আমাকে অপহরণ করা হয়েছিল ডার্ক ওয়েব বলে একটা ইন্টারনেট সাইটের জন্য। এখানে সাইটটি ব্যবহারকারির পরিচয় গোপন রাখা হয়। এখান থেকেই অপরাধীরা বিভিন্ন ধরনের বেআইনি জিনিস কেনা–বেচা করে। আমাকে অপহরণকারী যৌন দাসী হিসাবে ৩ লক্ষ ডলারের বিনিময়ে সেখানে বিক্রি করতে চেয়েছিল। প্রথমে আমায় ফটোশুটের অছিলায় মিলানে ডাকা হয়। তারপর একজন কালো গ্লাভস পড়ে পিছন থেকে আমার মুখ চেপে ধরে৷ অন্যজন আমার ডান হাতে ইনজেকশন দেয়৷ এরপর জ্ঞান হারাই আমি৷ পরে যখন জ্ঞান ফেরে তখন দেখলাম ব্যাগের ভিতর বন্দি আমি৷ হাত পা বাধা৷ মুখে লিউকোপ্লাষ্ট দেওয়া৷ যাতে নিঃশ্বাস নিতে পারি তার জন্য ব্যাগে ছোট ছিদ্র ছিল।’‌ ক্লোয়ি আরও বলেন, ‘‌আমায় শুটকেসে ভরে তুরিনের পরিত্যক্ত এক খামার বাড়িতে নিয়ে যাওয়া হয়। আমায় সেখানে গোলাপি রঙের পোশাক পরিয়ে রাখা হয়েছিল। সেখানে আমাকে আসবারের সঙ্গে বেঁধে রাখা হয়।’‌ 
বুধবার অভিযুক্তের শুনানি চলাকালীন তদন্তকারিরা জানান, অপহরণের সময় ওই মডেল মানসিকভাবে ভেঙে পড়েন। গত বছরের ১৭ জুলাই অভিযুক্ত লুকাজ পাওয়েল হার্বাকে গ্রেপ্তার করে ইতালি পুলিস। তদন্তকারিরা জানান, ক্লোয়িকে ছেড়ে দেওয়ার কারণ হল অপহরণকারীরা জানতে পারে ক্লোয়ির ২ বছরের শিশুপুত্র আছে। সন্তানের মাকে অপহরণ করা নিয়ম বিরুদ্ধ৷ তাই তারা ক্লোয়িকে মুক্তি দেয়৷ তবে মুক্তি দেওয়ার আগে তাকে মুখ না খোলার হুমকিও দেয় অপহরণকারীরা৷ পুলিশ জানিয়েছে এই ঘটনায় আরও একজন জড়িত৷ তার খোঁজ করা হচ্ছে। অভিযুক্তের ভাইকেও অপহরণের ঘটনায় গ্রেপ্তার করে পুলিস।  

 

 

 

ক্লোয়ি আয়লিং।

‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top