আজকাল ওয়েবডেস্ক: চোখের সামনে দেখা যাচ্ছিল। নিজের ছেলেটি ডুবে যাচ্ছে নদীতে। আর যেন এক মুহুর্ত বাকি। সব শেষ হয়ে যাচ্ছে। আর সেটা পিতা দাঁড়িয়ে দেখছেন। সিদ্ধান্ত নিলেন,  জলে নিজেই ঝাঁপ দেবেন। ঠিক তখুনি নজরে আসে, তাঁর সখের কুকুর 'ম্যাক্স' এক লহমায় করে ফেলেছে। অসহায় পিতা তীড়ে দাঁড়িয়ে দেখছেন তরতর করে তাঁর পোষা কুকুর সাতরে পৌছে গেছে এই ডুবন্ত ছেলেটার কাছে। উত্তেজনায় থরথর করে কাঁপছে পাড়ে দাঁড়িয়ে থাকা সব লোক। ছেলেটির বাবা চিৎকার করে ছেলেটিকে বোঝালেন অল্প ভেসে থাকার জন্য। কারণ সেই মুহুর্তে লাইফগার্ড হিসেবে তাঁরই পোষা কুকুর। নাটকিয়ভাবে সেই পোষা চারপেয়ে লাইফ জ্যাকেট কামড়ে ছেলেটিকে নিয়ে আসছে তীরের দিকে।

বহু মানুষ সাক্ষী থাকলেন এই বিরল ঘটনার। এই ঘটিনাটি ঘটেছে দক্ষিন অস্ট্রেলিয়ার নরল্যাং পোর্টে। প্রত্যক্ষদর্শীদের মতে, কুকুর বরাবরই প্রভুভক্ত প্রাণী। নিজের মালিকের জন্য প্রাণটুকুও  দিতে দ্বিধা করেনা।

 আর সেদিনের সেই ঘটনার সময় চারপেয়ে ম্যাক্স এটা নিশ্চই বুঝতে পেরেছিল তার মালিকের প্রাণপ্রিয় ছেলে ডুবে যাচ্ছে। সেকেন্ডে ম্যক্সের মাথায় হয়তো এটাই কাজ করছিল। এক লহমায় জলে ঝাঁপ দিয়ে সে পৌছে যায় ছেলেটাকে উদ্ধার করতে। 

ছেলেটিকে বাঁচিয়ে  আনার পর  এক অন্যরকম তৃপ্তি ম্যাক্সের চোখে। লেজ নেড়ে সেই তৃপ্তির জানান দিচ্ছিল সে। আর আশপাশের লোকের বাহবা দেওয়ার ঢংটাও উপভোগ করছিল ম্যাক্স। ম্যাক্সের মালিক রব অসবর্ন জানালেন, তিনি আনন্দিত কৃতজ্ঞ। বুলডল প্রজাতির কুকুরা হিংস্র হয়। তবে ম্যাক্স যা করে দেখালো তার জন্য তার সম্মান প্রাপ্য। অসবর্ন পরিবারের হিরো এখন তাদের পোষা ম্যাক্স। ম্যাক্সের সুখ্যাতি এখন মুখে মুখে নরল্যাং জুড়ে।

জনপ্রিয়

Back To Top