আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ ভয়াবহ কম্পন অনুভূত হল পূর্ব তুরস্কে। রিখটার স্কেলে কম্পনের মাত্রা ছিল ৬.৮। তীব্র ভূমিকম্পের ফলে অন্তত ১৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। আহতের সংখ্যা ৫০০–র বেশি। মৃতের সংখ্যা আরও বাড়ার আশঙ্কা রয়েছে। 
স্থানীয় সময় শুক্রবার রাত ৮.৫৫ মিনিট নাগাদ পূর্ব তুরস্কের এলাজিগ প্রদেশের একটি ছোট শহর সিভরাইসে কম্পন অনুভূত হয়। জায়গাটি রাজধানী আঙ্কারার প্রায় ৭৫০ কিলোমিটার পূর্বে। রিখটার স্কেলে কম্পনের মাত্রা ছিল ৬.৮। ভূপৃষ্ঠ থেকে প্রায় ৭ কিলোমিটার নিচে ছিল ভূমিকম্পের কেন্দ্রবিন্দু। এরপরে বেশ কয়েকটি আফটার শক অনুভূত হয়। রিখটার স্কেলে তার মাত্রা ছিল সর্বাধিক ৫.৪। কম্পন শুরু হওয়া মাত্রই আতঙ্কে বাড়ির বাইরে বেরিয়ে আসেন বাসিন্দারা। কিন্তু অনেকে ভিতরেই আটকে পড়েন। হুড়মুড়িয়ে বাড়ি ভেঙে পড়ার পর ধ্বংসস্তূপের নিচে চাপা পড়ে যান তাঁরা। 
উদ্ধারকারী দলের সদস্যদের পাশাপাশি পুলিশ ও দমকলকর্মীরাও উদ্ধার কাজে হাত লাগান। দেশের প্রতিরক্ষামন্ত্রকের তরফে জানানো হয়েছে, যে কোনও রকম সাহায্যের জন্য সেনাকে প্রস্তুত রাখা হয়েছে। তুরস্কের রাষ্ট্রপতি রেসেপ তাইয়েপ এরদোগান টুইটারে বলেছেন, ‘‌এলাজিগের ভূমিকম্পে ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের পাশেই রয়েছে সরকার। তাদের সম্পূর্ণ সাহায্য করা হবে।’‌ এ বিষয়ে সমস্ত দপ্তরকে সতর্ক থাকতে নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।
তুরস্কে এর আগে দুটি বড় ভূমিকম্প অনুভূত হয়েছিল। ১৯৯৯ সালে উত্তর–পশ্চিম তুরস্কে দুটি শক্তিশালী ভূমিকম্পে প্রায় ১৮ হাজার মানুষ মারা যান। ২০১০ সালে এলাজিগে একটি ভূমিকম্পে ৫১ জন মারা গিয়েছিলেন।

জনপ্রিয়

Back To Top