আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ আমেরিকা জুড়ে তাণ্ডব শুরু করেছে ‘‌বম্ব সাইক্লোন’‌। নাম শুনে যেকেউ চমকে যাবেন। চমকে কেন আঁতকে ওটার মতোই ভয়ঙ্কর এই তুষার ঝঞ্ঝা। ঝড়ের গতিতে আছড়ে পড়ে সেই বরফের গোলা। যার জেড়ে দৃশ্যমানতা একেবারেই ক্ষীণ হয়ে যায়। প্রচণ্ড ঠাণ্ডা জাঁকিয়ে বসে। তার সঙ্গে ঝোড়ো হাওয়ায় যান চলাচল পর্যন্ত থমকে যায়। এমনই কঠিন পরিস্থিতির মধ্যে পড়েছে আমেরিকার কলোরাডো।

যার জেরে গত দু’‌দিনে ৩১০০ বিমান বাতিল করা হয়েছে। জমে বরফ হয়ে গিয়েছে রানওয়ে। বিমান ওড়ার পক্ষে যা একেবারেই অযোগ্য বলে জানিয়েছে বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ। 
ডেনভার আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে সব টার্মিনাস বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। যাঁরা বিমানবন্দরে আটকে পড়েছেন তাঁদের জন্য কম্বল এবং গরম খাবারের ব্যবস্থা করা হয়েছে। এই আবহাওয়া আরও কয়েকদিন থাকবে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া দপ্তর। পরিস্থিতি এতোটাই খারাপ কলোরাডোয় জরুরি অবস্থা জারি করেছে স্থানীয় প্রশাসন।

বাসিন্দাদের বাড়ির বাইরে বেরোতে নিষেধ করা হয়েছে। এমনকী ট্রাফিক পুলিসও থাকছে না রাস্তায়। বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন হয়েছে পড়েছে প্রায় এক লাখ বাড়ি। যার ফলে যাবতীয় পরিষেবা থমকে গিয়েছে। স্কুল এবং অধিকাংশ দপ্তর অনির্দিষ্ট কালের জন্য বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। দোকান বাজারও বন্ধ। জনজীবন প্রায় স্তব্ধ হয়ে গিয়েছে। 
আবহাওয়াবিদ্‌রা জানিয়েছেন বম্ব সাইক্লোন এক ধরনে হ্যারিকেন যখন ব্যারোমিটারে বায়ুর চাপ ২৪ ঘণ্টায় এক ধাক্কায় ২৪ মিলিবার কমে যায়। তখনই এই বরফের গোলা সহ ঝড় আছড়ে পড়ে।  

জনপ্রিয়

Back To Top