আজকাল ওয়েবডেস্ক‌‌:‌ চীনের প্রাচীর বা ‘‌‌গ্রেট ওয়াল অব চায়না’ কোথায়?‌ পঞ্চম শ্রেণির খুদে পড়ুয়াও হয়ত এই সহজ প্রশ্নের উত্তর দিতে পারবে। কিন্তু এই উত্তর দিতে কেউ যদি নাকানিচোবানি খায় কিংবা দু’‌টি লাইফলাইন বা দু’‌বার সাহায্য চান, তাহলে?‌ শুনতে অবাক লাগলেও তুরস্কের একটি ক্যুইজ অনু্ষ্ঠানে দেখা গিয়েছে সেই দৃশ্য। ‘‌Who Wants To Be A Millionaire’ বা হিন্দিতে ‘‌কৌন বনেগা ক্রোড়পতি’‌ অনুষ্ঠানের মতোই তুরস্কেও একই রকম অনুষ্ঠান আয়োজিত হয়। সেখানেই আয়হান নামে ২৬ বছর বয়সি এক মহিলাকে সঞ্চালক প্রশ্ন করেন, ‘‌‘‌চীনের প্রাচীর বা ‘‌‌গ্রেট ওয়াল অব চায়না’ কোথায়?‌’‌’ অপশন হিসেবে বলা হয় ভারত, চীন, জাপান এবং দক্ষিণ কোরিয়ার নাম।‌ ইস্তানবুল বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইকোনমিকসে স্নাতক ওই মহিলা জানান, তিনি উত্তর জানেন তবুও দর্শকদের সাহায্য চান। আর এজন্য একটি লাইফলাইন ব্যবহার করেন। সেখানে ৫১ শতাংশ দর্শক উত্তর দেন চীন। এরপরও সন্তুষ্ট না হওয়ায় ‘‌ফোন আ ফ্রেন্ড’ লাইফলাইন ব্যবহার করে এক বন্ধুকে ফোন করেন তিনি। তাঁর বন্ধুটিও উত্তরে চীন জানালে, আয়হান তাতে সম্মতি দেন। যদিও পরের প্রশ্নটির ভুল উত্তর দেওয়ায় পরক্ষণেই অনুষ্ঠান থেকে ছিটকে যান ওই মহিলা। কিন্তু একটি সাধারণ প্রশ্নের উত্তর দিতে গিয়ে তাঁর এভাবে দু’‌টি লাইফলাইন নেওয়া নিয়ে অনেকেই প্রশ্ন তোলেন। তাঁকে নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় মজাও করা হয়। যদিও আয়হান এর উত্তরে বলেন,  লাইফলাইন কখন ব্যবহার করতে হবে, এটা সম্পূর্ণ তাঁর ব্যক্তিগত সিদ্ধান্ত। অন্যদের কথায় কান দেওয়ার পক্ষপাতী তিনি নন। যদিও তাতে আয়হানকে নিয়ে মশকরা থামছে না।‌ 

জনপ্রিয়

Back To Top