আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ জম্মু–কাশ্মীর এবং গুজরাটের জুনাগড়কে নিজের এলাকা বলে দাবি করে নতুন মানচিত্র প্রকাশ করেছে পাকিস্তানের ইমরান সরকার। নয়া মানচিত্র ঘিরে ইতিমধ্যেই বিতর্ক তুঙ্গে। এই ইস্যুতেই পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানকে খোঁচা দিলেন তাঁর প্রাক্তন স্ত্রী রেহাম খান। টুইটারে পাকিস্তানের নতুন মানচিত্রের একটি ছবি রিটুইট করে লেখেন, ‘‌কাশ্মীরেই থামল কেন ওরা?‌ দিল্লিও চাই আমার।’‌ 
মঙ্গলবারই নতুন মানচিত্র প্রকাশ করেছে ইসলামাবাদ।  পাক মন্ত্রিসভায় নতুন মানচিত্র অনুমোদিত হওয়ার পর পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বলেন, ‘‌এটা পাকিস্তানের ইতিহাসে সব থেকে ঐতিহাসিক দিন।’‌ পাকিস্তানের সব রাজনৈতিক দল এবং জম্মু–কাশ্মীরবাসীরাও এই মানচিত্র সমর্থন করেছে বলে জানিয়ে ইমরান বলেন, জম্মু–কাশ্মীরের উপর থেকে ৩৭০ ধারা বিলোপের বিরোধিতা করেছে তাঁদের এই নতুন মানচিত্র। পাক বিদেশমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কুরেশি বলেন, ‘‌ইতিহাসে এই প্রথম আমাদের সরকার বিশ্বের সামনে নিজেদের অবস্থান খোলাখুলি প্রকাশ করেছে।’‌ এমনকি ইসলামাবাদের কাশ্মীর সড়কের নাম তাঁরা বদলিয়ে শ্রীনগর সড়ক রেখেছেন বলেও এদিন জানিয়ে দেন কুরেশি। যদিও পাকিস্তানের ওই মানচিত্র এবং ঘোষণা পুরোপুরি নস্যাৎ করে দিয়েছে ভারত। বিদেশ মন্ত্রকের মুখপাত্র অমিতাভ শ্রীবাস্তব ইমরানের ঘোষণার কিছু পরেই বিবৃতি দিয়ে বলেছেন, ‘‌এটা রাজনৈতিক অবাস্তবতা, ভারতীয় রাজ্য গুজরাট এবং কেন্দ্রশাসিত জম্মু–কাশ্মীর এবং লাদাখের ভূমির উপর অবৈধ দাবি করা। এই আজগুবি কথার যেমন কোনও আইনত বৈধতা নেই, তেমনই কোনও আন্তর্জাতিক স্বীকৃতিও নেই।’‌ এরপর পাকিস্তানকে কড়া ভাষায় ঠুকে অমিতাভের মন্তব্য, ‘‌বরং এই চেষ্টা সীমান্তপারের সন্ত্রাসের মাধ্যমে ভূমি দখলের পাকিস্তানের উদগ্র বাসনাই ব্যক্ত করে।’‌     

জনপ্রিয়

Back To Top