আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ আন্তর্জাতিক মঞ্চে কাশ্মীর নিয়ে এবার বড়সড় জয় পেল ভারত। কাশ্মীর ভারতেরই অবিচ্ছেদ্য অংশ, ৭২ বছর পর একথা স্বীকার করল পাকিস্তান। মঙ্গলবার রাষ্ট্রসংঘের অধিবেশনের ফাঁকে সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে একথা বললেন পাক বিদেশমন্ত্রী শাহ মেহমুদ কুরেশি। কাশ্মীরকে ‘ইন্ডিয়ান স্টেট অব কাশ্মীর’ (ভারতের রাজ্য কাশ্মীর) হিসেবে উল্লেখ করলেন তিনি। রাষ্ট্রসংঘের মানবাধিকার কমিশনের অধিবেশনের ফাঁকে এদিন সাংবাদিকদের সামনে ভারতকে কাশ্মীর ইস্যুতে কোণঠাসা করার চেষ্টা করেন পাক বিদেশমন্ত্রী। আর সেটা করতে গিয়েই বিপত্তি বাঁধিয়ে ফেলেন তিনি। সাংবাদিকদের কুরেশি বলেন, ‘‌ভারত সরকারের দাবি, কাশ্মীরে সবকিছু ঠিক র‌য়েছে। মানবাধিকার লঙ্ঘিত হচ্ছে না। জনজীবনও স্বাভাবিক রয়েছে। যদি তাই হয়, তাহলে কেন ওখানে আপনাদের যেতে দেওয়া হচ্ছে না? বিদেশি সংবাদমাধ্যম বা স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনগুলিকে কেন কাশ্মীরে প্রবেশের অনুমতি দেওয়া হচ্ছে না? আসল কথা হল, কাশ্মীরে মানুষের অধিকার লঙ্ঘিত হচ্ছে। সরকার একবার নিষেধাজ্ঞা তুললেই জানা যাবে ভারতের কাশ্মীর রাজ্যের আসল পরিস্থিতি ঠিক কী?’‌
এদিকে, পাক বিদেশমন্ত্রীর এই মন্তব্যের পরই তাঁকে নিয়ে বিদ্রূপ শুরু হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। ভারতীয়রা বলছেন, স্বাধীনতার ৭২ বছর পর অবশেষে পাকিস্তান কাশ্মীরকে ভারতের অংশ বলে মেনে নিল বা এত দিনে পাক মন্ত্রী সত্যটা মেনে নিলেন!‌ অন্যদিকে, কুরেশির মন্তব্যের তীব্র সমালোচনা করছেন পাক নাগরিকরা। এদিকে, জম্মু–কাশ্মীর নিয়ে এ দিন রাষ্ট্রপুঞ্জে ১১৫ পাতার বিশেষ ডসিয়ার জমা দিয়েছে পাকিস্তান। মোদি সরকারের সমালোচনায় কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী এবং ন্যাশনাল কনফারেন্স নেতা ওমর আবদুল্লা যে মন্তব্য করেছিলেন, তার উল্লেখ করা হয়েছে তাতে।‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top