জল্পনার অবসান। সাতপাকে বাঁধা পড়লেন কেএল রাহুল এবং আথিয়া শেঠি।

জল্পনার অবসান। সাতপাকে বাঁধা পড়লেন কেএল রাহুল এবং আথিয়া শেঠি। মঙ্গলবার খান্ডালায় সুনীল শেঠির ফার্মহাউজে বসে বিয়ের আসর। সেখানে চার হাত এক হয়। দক্ষিণ ভারতীয় রীতি মেনেই বিয়ের অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়। আথিয়ার পরনে ছিল চন্দন রঙের লেহেঙ্গা। রাহুলের পরনে ঘিয়ে রঙা পাঞ্জাবি। ২০১৯ সাল থেকে প্রেমের বন্ধনে ছিল এই যুগল। এক বন্ধুর মাধ্যমে দু'জনের পরিচয় হয়। বন্ধুত্ব গড়ায় প্রেমে। বিদেশে সিরিজ চলাকালীন কেএল রাহুলের সঙ্গে একাধিকবার দেখা যায় আথিয়াকে। শেষপর্যন্ত তাঁদের প্রেম পরিণয় পেল। ছোট্ট, ঘরোয়া অনুষ্ঠানের মাধ্যমে বিয়ে সম্পন্ন হয়। নিমন্ত্রিত ছিলেন মাত্র একশোজন। সেই তালিকায় কোনও ক্রিকেটার ছিল কিনা সেটা এখনও জানা যায়নি।

জল্পনার অবসান। সাতপাকে বাঁধা পড়লেন কেএল রাহুল এবং আথিয়া শেঠি।

জল্পনার অবসান। সাতপাকে বাঁধা পড়লেন কেএল রাহুল এবং আথিয়া শেঠি।

মঙ্গলবার খান্ডালায় সুনীল শেঠির ফার্মহাউজে বসে বিয়ের আসর। সেখানে চার হাত এক হয়।

মঙ্গলবার খান্ডালায় সুনীল শেঠির ফার্মহাউজে বসে বিয়ের আসর। সেখানে চার হাত এক হয়।

 দক্ষিণ ভারতীয় রীতি মেনেই বিয়ের অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়। আথিয়ার পরনে ছিল চন্দন রঙের লেহেঙ্গা। রাহুলের পরনে ঘিয়ে রঙা পাঞ্জাবি।

দক্ষিণ ভারতীয় রীতি মেনেই বিয়ের অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়। আথিয়ার পরনে ছিল চন্দন রঙের লেহেঙ্গা। রাহুলের পরনে ঘিয়ে রঙা পাঞ্জাবি।

২০১৯ সাল থেকে প্রেমের বন্ধনে ছিল এই যুগল। এক বন্ধুর মাধ্যমে দু'জনের পরিচয় হয়। বন্ধুত্ব গড়ায় প্রেমে। বিদেশে সিরিজ চলাকালীন কেএল রাহুলের সঙ্গে একাধিকবার দেখা যায় আথিয়াকে।

২০১৯ সাল থেকে প্রেমের বন্ধনে ছিল এই যুগল। এক বন্ধুর মাধ্যমে দু'জনের পরিচয় হয়। বন্ধুত্ব গড়ায় প্রেমে। বিদেশে সিরিজ চলাকালীন কেএল রাহুলের সঙ্গে একাধিকবার দেখা যায় আথিয়াকে।

শেষপর্যন্ত তাঁদের প্রেম পরিণয় পেল। ছোট্ট, ঘরোয়া অনুষ্ঠানের মাধ্যমে বিয়ে সম্পন্ন হয়। নিমন্ত্রিত ছিলেন মাত্র একশোজন। সেই তালিকায় কোনও ক্রিকেটার ছিল কিনা সেটা এখনও জানা যায়নি।

শেষপর্যন্ত তাঁদের প্রেম পরিণয় পেল। ছোট্ট, ঘরোয়া অনুষ্ঠানের মাধ্যমে বিয়ে সম্পন্ন হয়। নিমন্ত্রিত ছিলেন মাত্র একশোজন। সেই তালিকায় কোনও ক্রিকেটার ছিল কিনা সেটা এখনও জানা যায়নি।