আজকালের প্রতিবেদন: চোখে কাছের–দূরের দু‌টি পাওয়ারই এখন শূন্যে নামিয়ে আনা সম্ভব। যঁাদের বাইফোকাল পাওয়ার, আধুনিক প্রযুক্তির অস্ত্রোপচারের পর আর চশমা পরার প্রয়োজন পড়ছে না তঁাদের। ল্যাসিক সার্জারি আগে শুধু তরুণদের জন্য ছিল, এখন বয়স্কদের ক্ষেত্রেও আকছার হচ্ছে। সুপ্রাকর ল্যাসিক সার্জারির ফলে এখন সেরে উঠছে মায়োপিয়া, প্রেসবায়োপিয়ার মতো চোখের পাওয়ারের সমস্যা। বাইফোকাল হলে দূরের পাওয়ার শূন্যে নামিয়ে আনার জন্য অনেক বছর ধরেই প্রযুক্তি এসেছে। কিন্তু কাছের পাওয়ার শূন্যে এত দিন নামানো যায়নি। ফলে চশমা পরতেই হত। ২০১৭ সালে সুপ্রাকর ল্যাসিক প্রযুক্তি ভারতে এসেছে, যাতে কাছে ও দূরের পাওয়ার শূন্যে আনা যায়। পূর্ব ভারতে প্রথম শুশ্রুত আই হাসপাতালেই আনা হয়েছে আধুনিক প্রযুক্তির এই মেশিন। প্রথম রোগীর চোখে অস্ত্রোপচার করা হয় ১৩ নভেম্বর। এস কে শাহজাদা নামে ওই ব্যক্তির অস্ত্রোপচার করেন হাসপাতালের রিফ্র‌্যাকটিভ সার্জেন (চশমা সরানোর সার্জারি)‌ ডাঃ দোয়েল বিশ্বাস। তিনি বলেন, ‘‌৪৬ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে যঁাদের কাছে–দূরে অর্থাৎ ‌বাইফোকাল পাওয়ার‌ আছে, তঁাদের সুপ্রাকর সার্জারি করলে চশমা পরার প্রয়োজন পড়ে না। চশমা পরতে অনেকেই পছন্দ করেন না। এর ফলে বিনা চশমায় মানুষ ভাল ভাবে দেখতে পাবেন। এখন চশমা ছাড়াই তিনি চমৎকার দেখতে পাচ্ছেন।’‌ 

জনপ্রিয়

Back To Top