আজকাল ওয়েবডেস্ক: মঙ্গলবার তামিলনাড়ু সরকার রাজ্যে স্কুল ও খোলার ঘোষণা কথা ঘোষণা করল। এরই মধ্যে তেলঙ্গনাও একই সিদ্ধান্ত নিয়েছে। শারীরিক উপস্থিতিতে পঠনপাঠন ফের চালু করার কথা জানিয়েছে অন্যান্য কয়েকটি রাজ্যও। অবশ্য পশ্চিমবঙ্গ এখনও এ বিষয়ে কিছু স্পষ্ট করেনি। দেখে নেওয়া যাক, কোন কোন রাজ্য কবে কবে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

তামিলনাড়ু: এ রাজ্যে ১৯ জানুয়ারি থেকে দশম থেকে দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্রদের জন্য খুলে যাবে স্কুল, জানিয়েছে সরকার। একই দিন থেকে হস্টেল এবং আবাসিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলিও খোলার কথা জানানো হয়েছে। 
কর্নাটক: ১৪ জানুয়ারি থেকে সমস্ত কলেজ খুলে যাবে কর্নাটকে। স্কুল খুলে গেছে বছরের নতুন বছরের প্রথম দিন থেকেই। 
মহারাষ্ট্র: ২০২০-র ২৩ নভেম্বর থেকে নবম থেকে দ্বাদশ শ্রেণির জন্য পঠনপাঠন শুরুর ঘোষণা করেছিল মহারাষ্ট্রের শিক্ষা দপ্তর। তবে নতুন স্ট্রেনের প্রকোপে আপাতত ১৫ জানুয়ারি পর্যন্ত সব বন্ধ। ২০ জানুয়ারি ফের এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। 
গুজরাট: দশম এবং দ্বাদশ শ্রেণির জন্য স্কুল, অন্তিম বর্ষের পড়ুয়াদের জন্য কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের পঠনপাঠন শুরু হয়ে গেছে ১১ জানুয়ারি থেকে। মুখ্যমন্ত্রী এবং উপমুখ্যমন্ত্রীর উপস্থিতিতে ক্যাবিনেট বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। 
তেলঙ্গনা: এ মাসে না হলেও ফেব্রুয়ারির প্রথম দিন থেকেই স্কুল-কলেজ খুলে যাবে তেলঙ্গনায়। তবে ও রাজ্যের সরকার জানিয়েছে, শুধু নবম থেকে দ্বাদশ শ্রেণির জন্যই খোলা হবে স্কুল। 
রাজস্থান: মেডিক্যাল, ডেন্টাল, নার্সিং এবং প্যারামেডিক্যাল কলেজগুলি খুলে গেছে ১১ তারিখেই। রাজস্থানের বাকি স্কুল ও কলেজগুলি খুলতে চলেছে ১৮ জানুয়ারি। 
পঞ্জাব: এ রাজ্যে পঞ্চম থেকে দ্বাদশ শ্রেণির পড়ুয়াদের জন্য স্কুল খুলে গেছে ৭ জানুয়ারি থেকে। তবে নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করতে স্কুল চালু রাখার সময় বাড়িয়ে সকাল ১০টা থেকে দুপুর ৩টে করা হয়েছে। 
এই রাজ্যগুলো ছাড়াও অসম, অরুণাচল এবং বিহারে শুরু হয়েছে পঠনপাঠন, অবশ্যই তা কোভিড সুরক্ষাবিধি পালন করে। দিল্লির সরকার এখনও এ বিষয়ে কোনও সিদ্ধান্ত নেয়নি, একই অবস্থা পশ্চিমবঙ্গেও।          
 

জনপ্রিয়

Back To Top