আজকালের প্রতিবেদন: প্রতিষ্ঠানের পড়ুয়াদের দক্ষতা আরও বাড়িয়ে তুলতে উদ্যোগ নিল টেকনো ইন্ডিয়া গ্রুপ (‌টিআইজি)‌। এর ফলে চাকরিতে ঢুকলে তাঁদের কাজ করতে অনেক সুবিধে হবে। শিল্প সংস্থা জোর দেয় দক্ষ কর্মীর ওপর। রাজ্য সরকারও কর্মীদের দক্ষতা আরও বাড়িয়ে তুলতে একগুচ্ছ উদ্যোগ নিয়েছে। কাজে ঢোকার আগে সংশ্লিষ্ট ক্ষেত্র সম্পর্কে জানা থাকলে অনেক সুবিধে। তাঁদের কাজ বুঝতে অসুবিধে হয় না। সময় বাঁচে। এই দিকে নজর দিয়েছে টেকনো ইন্ডিয়া গ্রুপ। সোমবার কলকাতায় তারা সমঝোতাপত্র স্বাক্ষর করল আইসিটি হেল্‌থ টেকনোলজি সার্ভিসেস ইন্ডিয়া প্রাইভেট লিমিটেডের সঙ্গে। এদিন চুক্তিতে সই করেন টেকনো ইন্ডিয়া গ্রুপের ম্যানেজিং ডিরেক্টর সত্যম রায়চৌধুরী এবং আইসিটি হেল্‌থ টেকনোলজি সার্ভিসেস ইন্ডিয়া প্রাইভেট লিমিটেডের ম্যানেজিং ডিরেক্টর এবং সিইও গৌতম দে। প্রথম ব্যাচে মেঘনাদ সাহা ইনস্টিটিউট অফ টেকনোলজির কম্পিউটার এবং তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগের ১৬ 
জন পড়ুয়ার নাম নথিভুক্ত করা হয়েছে। প্রশিক্ষণ–পর্বে পড়ুয়াদের উৎসাহ ভাতাও দেবে আইসিটি হেল্‌থ। ওই পড়ুয়াদের মধ্যে সেরাদের চাকরির সুযোগও করে দেওয়া হবে। গৌতমবাবু পড়ুয়াদের উদ্ভাবনী শক্তির ওপর জোর দেন। আইসিটি হেল্‌থ এ দেশ ছাড়াও সংযুক্ত আরব আমিরশাহি, ওমান, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, সিঙ্গাপুরে স্বাস্থ্যক্ষেত্রে তথ্যপ্রযুক্তি নিয়ে কাজ করে। ‌

 

সত্যম রায়চৌধুরীর সঙ্গে গৌতম দে। 

জনপ্রিয়

Back To Top