আজকালের প্রতিবেদন: স্ক্রাব টাইফাস নিয়ে আতঙ্ক তৈরি হয়েছে উল্টোডাঙার বাসন্তী কলোনি এলাকায়। সেখানে জ্বরে দু’‌জনের মৃত্যু হয়েছে। একজন সুখিনা বিবি (‌২৬)‌। ৬ নভেম্বর মারা যান আর জি কর হাসপাতালে। তাঁর মৃত্যু স্ক্রাব টাইফাসের জন্য হয়নি বলে দাবি স্বাস্থ্য দপ্তরের। অপরজন ৭ বছরের শুভ ময়রা। ১৮ নভেম্বর মারা যায় বি সি রায় হাসপাতালে। রাজ্যের স্বাস্থ্য অধিকর্তা ডাঃ অজয় চক্রবর্তী জানিয়েছেন, ‘‌স্ক্রাব টাইফাস নিয়ে অহেতুক আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে। ওই অঞ্চলে অনেকের জ্বর হলেও তা স্ক্রাব টাইফাসের জন্য নয়। নিশ্চিত হতে ৯ জনের রক্তের নমুনা নাইসেডে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে। মোট ৩ জন স্ক্রাব টাইফাসে আক্রান্ত হয়ে বি সি রায়ে ভর্তি ছিল। তার মধ্যে দু’‌জন সুস্থ হয়ে বাড়ি চলে গেলেও একজন শিশুর মৃত্যু হয়েছে। তার হেমারেজিক নিউমোনিয়া হয়েছিল। ওই এলাকায় গিয়ে সচেতন করা হয়েছে। জঞ্জাল সাফাই, ইঁদুর–ছুঁচোর উপদ্রব নিয়ন্ত্রণের কথা বলা হয়েছে।’ শনিবার স্বাস্থ্য দপ্তর ও কলকাতা পুরসভা যৌথ উদ্যোগে সংশ্লিষ্ট এলাকা অর্থাৎ ৩২ নম্বর ওয়ার্ডে স্বাস্থ্য শিবির করা হয়। ছিলেন মন্ত্রী সাধন পান্ডে, বিধায়ক নির্মল মাজি। কাউন্সিলর শান্তিরঞ্জন কুণ্ডু জানান, স্ক্রাব টাইফাস নিয়ে অনেকেরই স্পষ্ট ধারণা নেই। এলাকায় শিশুরা জ্বরে আক্রান্ত হওয়ায় আতঙ্ক তৈরি হয়েছে। এলাকা পরিষ্কার–পরিচ্ছন্ন রাখার নির্দেশ দিয়েছেন চিকিৎসকেরা।‌‌ রবিবার ওই এলাকায় সাফাই অভিযান চলে। ব্লিচিং পাউডার ছড়ানো হয়। কিন্তু কী করে ওই এলাকায় স্ক্র‌্যাব টাইফাস এল তা এখনও পরিষ্কার নয়।‌

স্ক্রাব টাইফাস কী?
ব্যাকটেরিয়া ঘটিত রোগ। লার্ভাল মাইটস (Larval Mites- এক ধরনের পোকা) কামড়ালে এই ব্যাকটেরিয়া মানুষের শরীরে ঢোকে। বেশি গাছপালা রয়েছে এমন অঞ্চলে এই পোকা বেশি। শহরেও এখন ছড়াচ্ছে এই পোকার রোগ। 
কীভাবে ছড়ায়?
লার্ভাল মাইটসের কাম‌ড়ে ৪-৫ মিলিমিটার মতো আকারে পুড়ে যাওয়ার মতো কালো দাগ হয়। ক্ষতস্থানে জ্বালা করে। ফুসকুড়ি হয়। সঙ্গে জ্বর, সর্দি-কাশি, মাথাব্যথা। কামড়ের ১৪-১৫ দিন পরেও এই সব উপসর্গ দেখা দিতে পারে। শিশুদের প্রতিরোধ ক্ষমতা কম, তাই তাদের ওপর বেশি প্রভাব ফেলে এই ব্যাকটেরিয়া।
স্ক্রাব টাইফাসের চিকিৎসা: চিকিৎসকের পরামর্শে অ্যান্টি ব্যাকটেরিয়াল কিছু ওষুধের সাহায্যে নিরাময় সম্ভব। যদিও এই রোগের এখনও কোনও প্রতিষেধক তৈরি হয়নি।
রোগ প্রতিরোধের উপায়: বাড়ি এবং আশপাশের এলাকা পরিচ্ছন্ন রাখা। 

প্রথম জাপানে: যে ব্যাকটেরিয়ার কারণে স্ক্রাব টাইফাস হয় তার নাম ওরিয়েনসিয়া শুশুগামুসি (Orientia Tsutsugamushi)। ১৯৩০-এ জাপানে এই ব্যাকটেরিয়ার প্রথম অস্তিত্ব মেলে।

জনপ্রিয়

Back To Top