আজকাল ওয়েবডেস্ক: এবার থেকে বাড়িতেই করা যাবে করোনার র‌্যাপিড টেস্ট। এই জন্য বাজারে এল হোম টেস্টিং কিট। তবে এই পরীক্ষা করার বেশ কিছু পদ্ধতি রয়েছে। কারা এই টেস্ট করতে পারবে তা নিয়েও সুনির্দিষ্ট নির্দেশিকা জারি করেছে আইসিএমআর। 

বাড়িতে এই র‌্যাপিড অ্যান্টিজেন টেস্ট তারাই ব্যবহার করতে পারবেন যাদের করোনার উপসর্গ রয়েছে অথবা যে সকল ব্যক্তি পজিটিভ আসা ব্যক্তিদের সংস্পর্শে এসেছেন। তবে যথেচ্ছ ব্যবহার না করতেই বলা হয়েছে। এই টেস্ট কিটের সঙ্গে প্রস্তুতকারী সংস্থার দেওয়া একটি ম্যানুয়াল বুক রয়েছে। সেই অনুযায়ী করতে হবে এই পরীক্ষা। পাশাপাশি হোম টেস্টিং সংক্রান্ত মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন পাওয়া যাবে এবং সেটিই গুগল স্টোর বা অ্যাপ স্টোর থেকে ডাউনলোড করতে হবে।

ম্যানুয়াল বুক ছাড়াও পরীক্ষা কিভাবে করা উচিত সেই সকল পদ্ধতি এই অ্যাপ থেকেও পেতে পারেন ব্যবহারকারীরা। পরীক্ষা করার পর ওই অ্যাপেই টেস্ট স্ট্রিপের ছবি তুলে আপলোড করতে হবে ব্যবহারকারীকে। বিএফ এর সঙ্গেই আইসিএমআর টেস্টিং পোর্টালের সংযোগ করা রয়েছে। ওই সার্ভারে সেই টেস্টের রিপোর্ট চলে যাবে সরাসরি।

এমনকি জানানো হয়েছে, যদি এই পরীক্ষার রিপোর্ট পজিটিভ আসে তাহলে দ্বিতীয়বার বা পুনরায় এই পরীক্ষা করার প্রয়োজন নেই। সেক্ষেত্রে ওই ব্যক্তিকে করোনা পজিটিভ বলেই গণ্য করা হবে। তবে উপসর্গ থাকার পরেও যদি এই রাপিড টেস্টে রিপোর্ট নেগেটিভ আসে তবে অবিলম্বে আরটি-পিসিআর টেস্ট করার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি এই টেস্ট কিট সহ অন্যান্য জিনিস কিভাবে কোথায় ফেলতে হবে তাও প্রস্তুতকারী সংস্থার নির্দেশ অনুযায়ী পালন করতে হবে।

এরই পাশাপাশি আইসিএমআর দ্বিতীয় অ্যান্টিজেন টেস্ট কিটকে ছাড়পত্র দিয়েছে। শিকাগোর একটি কোম্পানি এই কিটটি তৈরি করেছে। আপাতত ৫ জুলাই পর্যন্ত জরুরিকালীন ভিত্তিতে এটি ব্যবহারের নির্দেশ দিয়েছে। প্রস্তুতকারী সংস্থা মাই ল্যাব ডিসকভারি সলিউশন জানিয়েছে, প্রতিটি কিটের দাম হতে পারে ২৫০ টাকার আশেপাশে।

জনপ্রিয়

Back To Top