আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ এই নিয়ে টানা তৃতীয় বছরে পা দিল ফর্টিস হেল্থ কেয়ারের ক্যুইজ অনুষ্ঠান ‘‌সাইক–এড’। এটি দেশের একমাত্র মনোবিজ্ঞানের ক্যুইজ অনু্ষ্ঠান যা কিনা স্কুল ছাত্র–ছাত্রীদের‌ নিয়ে আয়োজিত হয়। ইতিমধ্যে শুরু হয়ে গিয়েছে তার রেজিস্ট্রশন। যা চলবে আগামী ৩০ জুলাই পর্যন্ত। ভারতের যুব সমাজকে মানসিক চিন্তাভাবনাকে আরও দৃঢ় করে তুলতে, এ বিষয়ে তাঁদের সম্যক জ্ঞান আর বাড়াতে গত তিন বছর ধরে আয়োজিত হচ্ছে এই ক্যুইজ অনুষ্ঠান। এর প্রধান উদ্যোক্তা ফর্টিস হাসপাতালের চিকিৎসক ডাঃ সমীর পারেখ। বিভিন্ন স্কুলের একাদশ এবং দ্বাদশ শ্রেণির পড়ুয়াদের নিয়েই এই অনুষ্ঠানটি হয়। আগামী ৭ আগস্ট অনলাইন এই ক্যুইজ অনুষ্ঠানটি আয়োজিত হবে। মূলত তিনটি রাউন্ড থাকে এই ক্যুইজ অনুষ্ঠানের। অনলাইন ক্যুইজ রাউন্ড, জোনাল রাউন্ড এবং গ্র‌্যান্ড ফিনালে। প্রত্যেক স্কুলকে একাদশ এবং দ্বাদশ শ্রেনির পড়ুয়াদের থেকে তিনজনকে বেছে নিয়ে একটি টিম বানাতে হবে। প্রাথমিক রাউন্ড অর্থাৎ অনলাইন ক্যুইজ রাউন্ডটি খেলতে হবে স্কুল থেকেই। সেই রাউন্ড থেকে সেরা ১২টি স্কুল সুযোগ পাবে জোনাল বা আঞ্চলিক রাউন্ডে। জোনাল রাউন্ড বা জোনাল ফিনালে অনুষ্ঠিত হবে দেশের সাতটি শহরে। দিল্লি, চন্ডীগড়, জয়পুর, মুম্বই, বেঙ্গালুরু এবং কলকাতায়। এরপর প্রত্যেকটি জোনাল বা আঞ্চলিকের বিজয়ীরা ‘‌গ্র‌্যান্ড ফিনালে’–তে অংশ নেওয়ার সুযোগ পাবে। যা অনুষ্ঠিত হবে আগামী ১ সেপ্টেম্বর, রাজধানী দিল্লিতে। ‌এই ক্যুইজ শোয়ের বিজয়ীরা পুরস্কার হিসেবে পাবে নগদ ১ লক্ষ টাকা। এছাড়া জি ডি গোয়েঙ্কা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে একটি স্কলারশিপ এবং ফর্টিস হেল্থ কেয়ারের মেন্টাল হেল্থ বিভাগে ইন্টার্ন করারও সুযোগ পাবে তারা। গত বছর গোটা দেশের ৯০টি শহর থেকে ৪৬০টি স্কুল এই প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়েছিল। প্রতিযোগীর সংখ্যা ছিল হাজারেরও বেশি। এবারও উদ্যোক্তারা এই প্রতিযোগিতা সফল হওয়ার ব্যাপারে আশাবাদী।  
 

জনপ্রিয়

Back To Top