আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ ভারতে থাবা বসাচ্ছে মাল্টিপল সিলেরোসিস রোগ। দিন–দিন বাড়ছে এর প্রকোপ। এর থেকে কীভাবে মুক্তি পাওয়া যায়?‌ কীভাবে এই রোগের চিকিৎসা হবে? তা নিয়েই নিজেদের পঞ্চম বার্ষিক সভার আয়োজন করেছিল ইকট্রিমস বা দ্য ইন্ডিয়ান কমিটি ফর ট্রিটমেন্ট অ্যান্ড রিসার্চ ইন মাল্টিপল সিলেরোসিস। গত ১৬ থেক ১৮ আগস্ট পর্যন্ত চলা এই কনফারেন্সে উপস্থিত ছিলেন দেশ–বিদেশের প্রায় ৩০০ জন বিখ্যাত চিকিৎসক। কনফারেন্সের উদ্দেশ্য ছিল, ভারতে বাড়তে থাকা মাল্টিপল সিলেরোসিস রোগীদের চিকিৎসায় আরও কীভাবে উন্নতি ঘটানো সম্ভব তা স্থির করা। কনফারেন্সে এই প্রসঙ্গে বক্তব্য রাখেন একাধিক চিকিৎসক। উঠে আসে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। এছাড়া ইউরোপিয়ান চারকোট ফাউন্ডেশনের সঙ্গে হাত মেলাল ইকট্রিমস। আগামিদিনে এই রোগের চিকিৎসায় একসঙ্গে কাজ করবে তারা। কিন্তু কী এই মাল্টিপল সিলেরোসিস?‌ এটি মূলত স্নায়ুজনিত একটি রোগ। যা থেকে চোখের দৃষ্টিশক্তি কমে যেতে পারে, হাড়ের দুর্বলতা–সহ আরও ভয়ানক রোগ হতে পারে। এরপর কয়েকবছর পর আক্রান্ত রোগীর বিছানা থেকে ওঠার ক্ষমতাও থাকে না। আর শেষপর্যন্ত যা থেকে মৃত্যু ঘটে। মূলত ২০ থেকে ৪৫ বছর বয়সিরাই এই রোগে আক্রান্ত হয়ে থাকেন। আর ইকট্রিমস তাই এই কঠিন রোগের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে নেমেছে।‌

জনপ্রিয়

Back To Top