আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ করোনার থাবায় ধুঁকছে দেশ। বন্ধ স্কুল, কলেজ। যেটুকু যা পড়াশোনা হচ্ছে, সবটাই অনলাইনে। এই পরিস্থিতিতে পড়ুয়াদের পড়ার চাপ কমাতে চায় সিবিএসই। সেজন্য রাষ্ট্রবিজ্ঞানের পাঠ্যক্রম থেকে ধর্মনিরপেক্ষতা, যুক্তরাষ্ট্রীয় পরিকাঠামো, গণতান্ত্রিক অধিকারের মতো পরিচ্ছেদ বাদ দিল। 
মঙ্গলবার সেন্ট্রাল বোর্ড অফ সেকেন্ডারি এডুকেশন (‌সিবিএসই)‌ ঘোষণা করে, ২০২০–২১ শিক্ষাবর্ষে পাঠ্যক্রমের ভার অনেকটাই লাঘব করা হবে। তিনভাগের একভাগ পরিচ্ছেদ কমিয়ে দেওয়া হবে। এতে পড়ুয়াদের বাড়ি বসে পড়াশোনায় অসুবিধা হবে না। এই বর্তমান করোনা পরিস্থিতির মোকাবিলা করতেই এই সিদ্ধান্ত। 
নবম থেকে দ্বাদশ শ্রেণীর রাষ্ট্রবিজ্ঞান এবং অর্থনীতির পাঠ্যক্রম থেকে বেশ কিছু পরিচ্ছেদ বাদ দিচ্ছে বোর্ড। একাদশ শ্রেণীর রাষ্ট্রবিজ্ঞানের পাঠ্যক্রম থেকে বাদ যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্রীয় পরিকাঠামো, নাগরিকত্ব, জাতীয়তাবাদ, ধর্মনিরপেক্ষতা। ‘‌আঞ্চলিক সরকার’‌ নামাঙ্কিত পরিচ্ছেদ থেকে দু’‌টি বিভাগ বাদ যাচ্ছে। ‘‌কেন আঞ্চলিক সরকারের প্রয়োজন?‌’‌ এবং ‘‌ভারতে আঞ্চলিক সরকারের বৃদ্ধি’‌। 
দ্বাদশ শ্রেণীর রাষ্ট্রবিজ্ঞানের পাঠ্যক্রম থেকে বাদ যাচ্ছে ‘‌আধুনিক পৃথিবীতে নিরাপত্তা’‌, ‘‌পরিবেশ এবং প্রাকৃতিক সম্পদ’‌, ‘‌ভারতে সামাজিক এবং নব্য সামাজিক আন্দোলন’‌, ‘‌আঞ্চলিক আকাঙ্ক্ষা’‌। অর্থনীতি পাঠ্যক্রম থেকে বাদ পড়ছে ‘‌ভারতের আর্থিক উন্নয়নের প্রকৃতি বদল’‌, ‘‌পরিকল্পনা কমিশন এবং পঞ্চবার্ষিকী পরিকল্পনা’‌। ভারতের বিদেশনীতির পাঠ্যক্রমেও পড়েছে কোপ। পাকিস্তান, নেপাল, বাংলাদেশ, শ্রীলঙ্কা, মায়ানমারের সঙ্গে ভারতের সম্পর্কের পরিচ্ছেদ আর পড়তে হবে না পড়ুয়াদের। 
নবম শ্রেণীর রাষ্ট্রবিজ্ঞানে আর পড়ানো হবে না গণতান্ত্রিক অধিকার, সংবিধানের প্রকৃতির মতো গুরুত্বপূর্ণ পরিচ্ছেদ। দশম শ্রেণীর পড়ুয়াদের আর পড়তে হবে না ‘‌গণতন্ত্রের চ্যালেঞ্জ’‌, ‘‌জাতি, বর্ণ ও লিঙ্গ’‌, ‘‌গণতন্ত্র এবং বৈচিত্র‌্য’‌–র মতো পরিচ্ছেদ। 

জনপ্রিয়

Back To Top