আজকালের প্রতিবেদন- কোভিড–১৯ পরিস্থিতিতে পর্যাপ্ত গাইডলাইন মেনে চক্ষু চিকিৎসা পরিষেবা চালু করার নির্দেশ দিল স্বাস্থ্য দপ্তর। সমস্ত সরকারি, বেসরকারি এবং স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার মাধ্যমে চালিত চক্ষু পরিষেবা শুরু করা যাবে। তবে যে সমস্ত হাসপাতাল ও সংস্থা জাতীয় অন্ধত্ব নিবারণ কর্মসূচি প্রকল্পের সঙ্গে যুক্ত সেখানে স্বাস্থ্য দপ্তরের দেওয়া গাইডলাইন মেনে চক্ষু পরিষেবা শুরু করা যাবে। এই বিষয়ে একটি নির্দেশিকা জারি করেছে স্বাস্থ্য দপ্তর। এবিষয়ে সমস্ত জেলা মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক, মেডিক্যাল কলেজ কর্তৃপক্ষর কাছে চিঠি পাঠানো হয়েছে। গাইডলাইনে বলা হয়েছে—
• রেড জোন ছাড়া বাকি সব জায়গায় চক্ষু চিকিৎসার ইনডোর, আউটডোর ও সার্জারি করা যাবে
• সামাজিক দূরত্ব মানা, ফেস মাস্ক, ফেস শিল্ড, গগলস, হাত ধোয়া প্রভৃতি সুরক্ষা বিধি মানতেই হবে
• একই সময়ে বেশি রোগীকে দেখার অনুমতি নেই। সব রোগীর মধ্যে থাকতে হবে অন্তত ১–২ মিটারের ব্যবধান
• ওপিডি কার্ড, ট্রায়াল ফ্রেম, ট্রায়াল লেন্স যতটা কম সম্ভব স্পর্শ করা, ব্যবহৃত সরঞ্জাম ঘন ঘন স্যানিটাইজ করা
• সব রোগীর ফেস কভার পরা এবং ওপিডিতে ঢোকার আগে হাত ধোয়া বাধ্যতামূলক
• কোনও সার্জারি করার আগে রোগীর থেকে সম্মতি নিতে হবে। ভবিষ্যতে রোগীর করোনা সংক্রমণ হলে তিনি দায়ী করতে পারবেন না
• হাসপাতালের বাইরে কোথাও চক্ষু শিবির বা ভ্রাম্যমাণ শিবির করা যাবে না
• সার্জারি চলাকালীন চক্ষু সার্জেন–‌সহ বাকিদের কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের দেওয়া গাইডলাইন মানতে হবে
• সার্জারির আগে রোগীর কোভিড টেস্ট করা বাধ্যতামূলক নয়
• দুর্গম জায়গার রোগীদের ক্ষেত্রে টেলি অপথ্যালমোলজি বা টেলি কনসালট্যান্টের বিষয়ে জোর দিতে হবে

জনপ্রিয়

Back To Top