আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ বিশ্বজুড়ে আতঙ্ক নভেল করোনাভাইরাস নিয়ে। চীনে প্রতিদিন বাড়ছে আক্রান্ত আর মৃতের সংখ্যা। ছড়াচ্ছে আশপাশের নানা দেশেও। আর এই ভয়ের আবহে মিডিয়ার পাশাপাশি সোশ্যাল মিডিয়াতেও বাড়ছে এই রোগ নিয়ে আলোচনা। এর মধ্যে বেশ কিছু পোস্ট নিয়ে বাড়ছে বিভ্রান্তি। চিকিৎসকরা বলছেন, ভুলভাল টোটকা সুপারিশ করা হচ্ছে যা বিপদ বাড়িয়ে তুলতে পারে।
যেমন গত ক’দিনে একটি ফেসবুক পোস্ট হাজারে হাজারে শেয়ার হয়েছে যেখানে বলা হচ্ছে, আদা নাকি করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ সারিয়ে দিতে পারে। কিন্তু বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এই দাবির কোনও বৈজ্ঞানিক ভিত্তি নেই। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বা ‘WHO’‌ বলছে, সংক্রমণের কোনও লক্ষণ দেখা গেলেই সঙ্গে সঙ্গে ডাক্তার দেখিয়ে নিতে হবে। আর কোনও বিকল্প নেই।
এদিকে, ওই ধরনের পোস্টে বলা হচ্ছে, যদি মনে হয় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন, তাহলে চব্বিশ ঘন্টা কিছু খাবেন না। তারপরে টানা তিনদিন আদা ফোটানো গরম জল খেয়ে যান। কেন গরম অবস্থায় খাবেন? করোনা ভাইরাস নাকি ঠান্ডায় ভালো থাকে, আর বেশি গরমে কাবু হয়।
ডাক্তাররা বলছেন, এমন টোটকাকে বিশ্বাস করা মানে বিপদ আরও বাড়িয়ে তোলা। এটা ঠিকই যে কম আর্দ্রতা ও ঠান্ডা আবহাওয়ায় এই ভাইরাস বেশি ছড়ায়, কিন্তু গরম জল বা আদা একে কোনওভাবে নিয়ন্ত্রণ করতে পারে, এমন কোনওরকম নিশ্চয়তা নেই।
করোনা ভাইরাস সংক্রমণ বা কোভিড–১৯ থেকে বাঁচতে হলে কী কী সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে, ‘WHO’ স্পষ্টভাবে তা বলে দিয়েছে। হাত পরিষ্কার রাখতে হবে। নাক যথাসম্ভব ঢেকে রাখতে হবে। খাবার দাবার বুঝে খেতে হবে। কারওর সংক্রমণ হয়েছে মনে হলে, যিনি কাশছেন, হাঁচি দিচ্ছেন বা যাঁর শ্বাস নিতে কষ্ট হচ্ছে, তাঁর থেকে দূরে থাকুন আর হাসপাতালে চলে যান। করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে চীনে মৃত্যু ইতিমধ্যেই দেড় হাজার ছাড়িয়েছে।‌

জনপ্রিয়

Back To Top