আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ ‌অফিস, কলেজ কিংবা বাড়ির কাজ, অনেকেই সারাদিন নানারকম কাজে ব্যস্ত থাকেন। আবার কেউ আছেন ২৪ ঘণ্টার মধ্যে অধিকাংশ সময়ই কোনও কাজ করেন না। বড্ড আরামপ্রিয় হন তাঁরা। কিন্তু সম্প্রতি একটি সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে, দৈনন্দিন জীবনে এই অলসতা ডেকে আনতে পারে ডায়াবেটিসের মতো রোগ। আনন্দপুর ফর্টিস হাসপাতালের চিকিৎসক কল্যান কুমার গঙ্গোপাধ্যায় সম্প্রতি ভ্যাঙ্কুভারে অনুষ্ঠিত ওয়ার্ল্ড ডায়াবেটিস ফেডারেশনের একটি কনফারেন্সে গিয়ে এই কথাই জানালেন। অনেকেই মনে করেন, ডায়াবেটিস কিংবা মধুমেহ রোগ জিনগত। অর্থাৎ মা–বাবার কারোর থাকলে সেটা সন্তানের মধ্যেও দেখা দিতে পারে। কিন্তু নয়া গবেষণায় দেখা গিয়েছে, শুধু পারিবারিক নয়, প্রতিদিন যাঁরা আরাম করে কাটান, তাঁদের শরীরেও বাসা বাঁধতে পারে ডায়াবেটিস। কল্যানবাবু বলেন, প্রায় ৬০ শতাংশ রুগিই নিয়মিত শরীরচর্চা করেন না। ফিজিওথেরাপিস্টের পরামর্শ মতো কাজ করেন না। এছাড়া তিনি আরও জানান, শারীরিক কাজকর্ম মানেই শুধু জিম নয়, দৈনন্দিন কাজকর্মগুলিও ডায়াবেটিসকে দূরে রাখতে সাহায্য করবে। যেমন, বাড়ির নানারকম কাজ, প্রাতঃভ্রমণ, লিফটের বদলে সিঁড়ি দিয়ে ওঠানামা, ট্রেডমিলে দৌড়ানো, সাইকেল চালানো, বাড়ি পৌঁছানোর কিছুটা আগে গাড়ি থেকে নেমে বাকিটা হেঁটে যাওয়া–প্রভৃতি কাজেও শরীরে বাসা বাঁধবে না ডায়াবেটিস। এতে রক্তে গ্লুকোজের মাত্রা অনেকটাই কমবে। শরীরের পেশিগুলিও শিথিল হয়ে পড়বে না।         

জনপ্রিয়

Back To Top