'মধ্যপ্রদেশের জঙ্গলের আরও যত্ন নেওয়া উচিত', শুটিংয়ের অভিজ্ঞতা শেয়ার করে বললেন বিদ্যা

আজকাল ওয়েবডেস্ক: করোনা আবহের মধ্যেই ছবির শুটিং। এমনকি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তির অপেক্ষা না করে ওটিটি প্ল্যাটফর্মেই মুক্তি পাচ্ছে বিদ্যা বালানের পরবর্তী সিনেমা 'শেরনি'। সিনেমার শুটিংয়ের অভিজ্ঞতা ভাগ করার সময়ই বিদ্যা বলেন, মধ্যপ্রদেশের জঙ্গলের দুর্বিষহ অবস্থার কথা। তাঁর আগামী সিনেমার সিংহভাগ শুটিং হয়েছে মধ্যপ্রদেশের জঙ্গলে। জঙ্গলের রিয়েল অভিজ্ঞতা ভোলার নয় বলেই মত অভিনেত্রীর। গা ছমছমে পরিবেশে সিনেমার শুটিংয়ের অভিজ্ঞতা শেয়ারের পাশাপাশি সচেতনতার বার্তাও দিলেন তিনি। বিদ্যার মতে, জঙ্গলের আরও যত্ন নেওয়া প্রয়োজন। তিনি সিনেমার শুটিং স্পট হিসেবে কোনও বিশেষ জায়গায় প্রমোশন করেন না ঠিকই। কিন্তু গোটা মধ্যপ্রদেশের জঙ্গল দেখে তিনি মুগ্ধ হয়ে গিয়েছেন। কিন্তু অচিরেই এর অবস্থা আরও খারাপ হয়ে যেতে পারে বলেই আশঙ্কা তাঁর। তাই আরও যত্নের প্রয়োজন বলেই মনে করছেন অভিনেত্রী। বিদ্যার মতে, মানুষ নিজে দায়িত্ব নিয়ে প্রকৃতিকে রক্ষা করলে এমন দুর্দিনের সম্মুখীন হতে হত না কাউকেই। পৃথিবীর ফুসফুস হল বন, জঙ্গল। এটি সুরক্ষিত না থাকলে, আমাদের সকলের ভবিষ্যৎ সংকটে। ভারতের প্রাকৃতিক সম্পদ মধ্যপ্রদেশের এই জঙ্গলগুলো। তাঁকে রক্ষা করার দায়িত্ব নাগরিকদেরই। 

প্রতিটা সিনেমার আগেই নিজেকে ভেঙে নতুন করে দর্শকদের সামনে তুলে ধরেন বিদ্যা। এবারেও অন্যথা হল না। সাজ, ডিজাইনার পোশাকের চাকচিক্যের ছোঁয়া নেই এবারও। একে সাধারণ মানুষের মতোই বিদ্যা ধরা দেবেন। এবার তিনি ফরেস্ট অফিসারের ভূমিকায়। গভীর জঙ্গলের মানুষখেকো বাঘের অত্যাচারে যখন গ্রামবাসীর বেঁচে থাকা দায়, তখন ফরেস্ট অফিসারের ভূমিকায় অবতীর্ণ হন বিদ্যা। কিন্তু পরিস্থিতি সামাল দিতে নানান সমস্যার সম্মুখীন হতে হয় তাঁকে। সেই গল্পই তুলে ধরা হয়েছে সিনেমায়। ১৮ জুন অ্যামাজন প্রাইমে মুক্তি পাবে বিদ্যা অভিনীত 'শেরনি'।