Tollywood: গঙ্গাপাড়ে বসে ঠোঁটে মান্না দের গান! টোটা কি প্রেমে পড়লেন?

নিজস্ব সংবাদদাতা: বিন্দাস আছেন টোটা রায়চৌধুরী! কোনও রবিবার তিনি তারিয়ে তারিয়ে ‘ল্যাদ’ খাচ্ছেন।

আবার কেজো দিনে গঙ্গাপাড়ে বসে হাওয়া! টিপিক্যাল প্রেমিকসুলভ সাজ। সাদা-কালোয় চেক শার্ট। কালো ট্রাউজার। বাঁ কবজিতে বড় ঘড়ি। পোশাক এক্কেবারে ক্যাজুয়াল ভঙ্গিতে পরা। যেন চুলে আঙুল বোলাতে বোলাতে এসে বসে পড়েছেন! দূরে হাওড়া ব্রিজ। তখনও কুয়াশার হাল্কা আমেজ। ছবিটি অনেকটাই যেন ‘রোহিত সেন’-এর গন্ধমাখা। এই পর্যন্তও ঠিক ছিল। অভিনেতা নিজেই ঠিক থাকতে দেননি। এমন রোমান্টিক ছবির সঙ্গে মান্না দে-র তেমনই মিষ্টি প্রেমের একটি গান জুড়ে দিয়েছেন। ‘এই কুলে আমি ওই কুলে তুমি, মাঝখানে নদী ওই বয়ে চলে যায়!’

ব্যস, ছবি আর গানের পংক্তি দেখেই অনুরাগীদের নতুন হা-হুতাশ, এ যে সেই রোহিত সেন! সবার নতুন করে মনে পড়েছে পুজোর আগে শেষ হওয়া ধারাবাহিক ‘শ্রীময়ী’র কথা। যেখানে টোটা আদ্যপান্ত প্রেমিক। এক অনুরাগীর রীতিমতো আফসোস, ‘এখনও মিস করি সেই রোহিত সেনকে’! এ দিকে সংবাদমাধ্যম অন্য গন্ধ পাচ্ছে। শেষপর্যন্ত টোটাও প্রেম করছেন? কৌতূহলবশতঃ আজকাল ডট ইন যোগাযোগ করেছিল তাঁর সঙ্গে। প্রশ্ন শুনেই দরাজ হাসি। তার পর বললেন, ‘‘একেবারেই তা নয়। আমি এক নীতিতে বিশ্বাসী। চেনা-পরিচিতের গণ্ডি থেকে বেরনোর কোনও ইচ্ছেই নেই। তাই নতুন কোনও প্রেমও নেই।’’ কয়েক দিন আগে বাড়িতে অবসর উপভোগের একটি ছবি দিয়েছিলেন তিনি। সেটা খেয়ালের বশে, মানা যায়। কিন্তু গঙ্গাপাড়ে গিয়ে এভাবে ছবি তুলে প্রেমের গানের পংক্তি!

 

এ বার টোটা সাবধানী। ‘ফেলুদা’র মতোই মগজাস্ত্র খাটিয়ে জানালেন, একেবারে গঙ্গাপাড় বলা যাবে না। গঙ্গার পাড় ঘেঁষা একটি বাড়ির ছাদে ছিলেন। সেখানেই ওই বিশেষ ভঙ্গিতে বসে ছবি তুলেছেন। গানের পংক্তিও জুড়ে দিয়েছেন। আরও রহস্যভেদ, নিছক হাওয়া খেতে নয়, শ্যুটিংয়ের কারণেই টোটা ওই স্থানে। ছোট পর্দা, বড় পর্দা না সিরিজ? সঙ্গে সঙ্গে মুখে কুলুপ তাঁর। রহস্যময় গলায় কেবল বললেন, ‘‘দর্শক ভাবুন...ভাবা অভ্যাস করুন।’’

 

আকর্ষণীয় খবর