Bihar: আর এক পায়ে নয়, দু'পায়ে হেঁটেই স্কুলে যাবে সীমা! সাহায্যের বার্তা সোনু সুদের

আজকাল ওয়েবডেস্ক: সীমার লড়াইকে কুর্ণিশ জানিয়ে পাশে থাকার আশ্বাস দিল প্রশাসন।

সাহায্যের বার্তা দিলেন অভিনেতা সোনু সুদও। বিহারের জামুইয়ের ফতেহপুর গ্রামের বাসিন্দা সীমা। দুই বছর আগে এক দুর্ঘটনায় তার এক পা বাদ পড়ে। শয্যাশায়ী অবস্থায় পড়াশোনাতেও সমস্যা হত তার। স্কুলে যেতে পারেনি দীর্ঘদিন। কিন্তু শারীরিক প্রতিবন্ধকতাকে পিছনে রেখে সেই এক পায়ে ভর দিয়েই স্কুলে যেতে শুরু করে সে। প্রায় এক কিলোমিটার পথ এক পায়ে হেঁটে সীমা স্কুলে যায়। 

বছর দশেকের সীমার এক পায়ে হেঁটে স্কুলে যাওয়ার একটি ভিডিও সম্প্রতি তুমুল ভাইরাল হয় সোশ্যাল মিডিয়ায়। যা দেখে দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল টুইট করেন। এবার তাঁর পাশে থাকার বার্তা দিল প্রশাসন। জেলাশাসক অবনীশ কুমার জানিয়েছেন, সীমার পরিবারকে একটি ট্রাইসাইকেল দেওয়া হবে। তাছাড়াও সীমাকে একটি কৃত্রিম পা দেওয়া হবে। নিজের স্বপ্নপূরণের লক্ষ্যে সীমার এই নিষ্ঠাকে কুর্ণিশ জানিয়েছেন তিনি। 

অন্যদিকে সোশ্যাল মিডিয়ায় অভিনেতা সোনু সুদ লেখেন, সীমা এবার থেকে দুই পায়ে হেঁটেই স্কুলে যাবে। তাঁর দুই পায়ে হেঁটে স্কুলে যাওয়ার সময় এসে গেছে। যাবতীয় ব্যবস্থাও করছেন তিনি। সোনু সুদের টুইটের পরেই সীমার পাশে থাকার জন্য এগিয়ে এসেছেন নেট নাগরিকরা। 

আকর্ষণীয় খবর