আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ অঞ্জন দত্ত এবং অরিন্দম শীল। দুই পরিচালকই শরদিন্দু বন্দ্যোপাধ্যায়ের অমর সৃষ্টি ব্যোমকেশ বক্সী নিয়ে পরপর ছবি করছেন। অঞ্জনের ছবিতে ব্যোমকেশের ভূমিকায় আগে ছিলেন আবির চ্যাটার্জি। এখন সেই চরিত্রে যিশু সেনগুপ্ত। অজিতের ভূমিকায় অভিনয় করেন শাশ্বত চ্যাটার্জি। আবির এখন অরিন্দম শীলের ব্যোমকেশ। অরিন্দমের ছবির অজিত এতদিন ছিলেন ঋত্বিক চক্রবর্তী। তাঁর আগামী ছবি, ‘‌ব্যোমকেশ গোত্র’‌–এ এবার প্রথম ব্যোমকেশ–অজিত জুটিকেই দেখতে পাবেন দর্শকরা। হ্যাঁ, অরিন্দম শীলের আগামী ছবি, ব্যোমকেশ কাহিনী ‘‌রক্তের দাগ’‌ অবলম্বনে তৈরি ‘‌ব্যোমকেশ গোত্র’‌–এ অজিত হচ্ছেন শাশ্বত চ্যাটার্জি। হঠাৎ এই পরিবর্তনের ব্যাপারে পরিচালক বললেন, ঋত্বিক তাঁকে জানিয়েছিলেন, তিনি আর অজিতের ভূমিকায় অভিনয় করতে নারাজ। এরপরই শাশ্বতর কথা তাঁর মাথায় আসে। কিন্তু যেহেতু শাশ্বত অঞ্জন দত্তর ব্যোমকেশেও ওই একই ভূমিকায় অভিনয় করেন, তাই চরিত্র নির্বাচনের আগে অরিন্দম তাঁর সঙ্গে কথা বলেন। অরিন্দম জানালেন, যেহেতু তাঁরা দু’‌জনেই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বছরে যে কেউ একটা করেই ব্যোমকেশের ছবি করবেন, তাই অঞ্জন রাজি হয়ে যান। এরপরই তিনি শাশ্বতর সঙ্গে কথা বলেন অরিন্দম। অভিনেতা জানালেন, অঞ্জন দত্তর সঙ্গে কথা না বলে প্রথমে তিনি এব্যাপারে কিছু বলতে চাননি। কিন্তু তাঁর কাছ থেকে অনুমতি পেয়ে অরিন্দমকে হ্যাঁ করে দেন। অরিন্দমের শবর সিরিজে গোয়েন্দা অফিসার শবর দাশগুপ্ত শাশ্বতই। একই পরিচালকের দু’‌ধরনের ছবিতে দুটি আলাদা চরিত্রে অভিনয় করা প্রসঙ্গে শাশ্বত বললেন, তাঁর কাছে এটা একটা চ্যালেঞ্জ। শাশ্বতর মতো অভিনেতার কাছে এটা যে কোনও সমস্যাই হবে না তা নিয়ে নিশ্চিত পরিচালকও। অজিতের চরিত্র ছেড়ে দেওয়ার কারণ নিয়ে মুখ খুলতে চাননি ঋত্বিক। তিনি বলেছেন, তিনি অনেক ছবি করেন, বহু ছবি ছেড়ে দেন। যেগুলি তিনি করেন, শুধু সেগুলি নিয়েই তিনি কথা বলতে পছন্দ করেন।  

জনপ্রিয়

Back To Top