‌বিনোদনের প্রতিবেদন:‌ এবার ঋতুপর্ণা সেনগুপ্তকে মুখ্য চরিত্র করে বড়পর্দার ছবি শুরু করলেন অঞ্জন চৌধুরি পুত্র সন্দীপ চৌধুরি। যিনি মূলত ছোটপর্দার পরিচালক হিসেবে  এর মধ্যেই ১০‌টি ধারাবাহিক পরিচালনা করে ফেলেছেন। তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য ‘‌এরাও শত্রু’,‌ ‘‌রাঙিয়ে দিয়ে যাও’, ‘‌গুরুদক্ষিণা’, ‘‌আমি সেই মেয়ে’‌ ইত্যাদি। এবার তাঁর দ্বিতীয় ছবির কাজ শুরু করলেন সন্দীপ। ছবির নাম ‘‌বিদ্রোহিনী’‌। তাঁর প্রথম ছবি ‘‌এরাও শত্রু’‌ অবশ্য এখনও মুক্তি পায়নি। চলছে পোস্ট প্রোডাকশনের কাজ। 
তাঁর এই ছবিতে ছবিতে ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত অভিনয় করছেন একজন আই পি এস অফিসারের ভূমিকায়। তাঁর চরিত্রের নাম কিরণ। ছোটবেলাতেই বাবা-‌মাকে হারিয়ে কিরণ মামাবাড়িতে মানুষ। ছোটবেলায় সে দেখেছে কীভাবে তার দিদি অরুণিমাকে সমাজ বিরোধীরা তুলে নিয়ে যায়। অথচ তাদের কারও শাস্তি হয়নি। কিরণের প্রেমিক রাহুলের বাবা দীপঙ্কর ব্যানার্জি পুলিশ কমিশনার। তাঁকে দেখেই কিরণের পুলিশ অফিসার হওয়ার স্বপ্ন দেখেছিল। কিন্তু সত্যিই কি তিনি সব প্রশ্নের ওপরে?‌ কেন যে কোনও দূর্নীতির প্রশ্নে সবার আগে চলে আসে দীপঙ্কর ব্যানার্জির নাম?‌ আজন্ম লনাকু মেয়ে কিরণের লড়াই আবার নতুন করে শুরু হয়। তারই গল্প ‘‌বিদ্রোহিনী’‌। ঋতুপর্ণা ছাড়াও ছবিতে রাহুলের ভূমিকায় অভিনয় করেছেন জিতু কমল, দীপঙ্কর ব্যানার্জির ভূমিকায় অভিনয় করেছেন গৌতম মুখার্জি।
সন্দীপ চৌধুরি জানালেন, এই ছবি তাঁর বাবা অঞ্জন চৌধুরির ঘরাণাতেই তৈরি। জানালেন, ‘‌বাবার ছবির একটা বিশেষত্ব হল অন্যায়ের প্রতিবাদ। তার সঙ্গে থাকত একটা সুন্দর গল্প। বাবাকে তো কখনোই বিদেশে শুটিং বা হাই বাজেটের ওপর নির্ভর করতে হয়নি। গল্প আর অভিনয়ের টানেই তাঁর ছবি দেখতে ভিড় করতেন দর্শক। আমি বাবার সেই পথ অনুসরণ করেই চলতে চাই।’‌ আপাতত শুটিং শেষ এই ছবির। 

জনপ্রিয়

Back To Top