সঙ্কর্ষণ বন্দ্যোপাধ্যায়: • ‘‌কুসুম দোলা’‌র এসিপি রণজয় চ্যাটার্জি এবার ‘‌কোড়া পাখি’‌ ট্রাভেল গাইড অঙ্কুর?
•• একদম ঠিক বলেছেন। স্টার জলসার নতুন ধারাবাহিকে আমার চরিত্রের নাম অঙ্কুর। আমার আগে করা ধারাবাহিক গুলোর চরিত্রের থেকে একদম আলাদা।
• ধারাবাহিকে এর আগে যতগুলো চরিত্র করেছেন সেগুলো হয় ডাক্তার নয় পুলিশ অফিসার নয় সাংবাদিকের গম্ভীর চরিত্র। ডিরেক্টর বলছেন এবার আপনার চরিত্র ‘‌অঙ্কুর’ যেন ঋষি কৌশিকেরই মতো।
•• সিরিয়াস চরিত্র কখনওই জেনে শুনে নিই নি। আমাকে অফার করা হয়েছিল। আসলে এই রকম গম্ভীর চরিত্র গুলি পর পর আমার কাছে এসে ছিল। এর শুরুটা হয়েছিল ‘‌এখানে আকাশ নীল’‌ ধারাবাহিক থেকে। ডিরেক্টর অনিন্দ্য ব্যানার্জি বলেছিলেন উজানের রোলটা তুই কর, কারন এটা করার মতো আর কাউকে পাচ্ছি না। আমি তখন একটু শেকি ছিলাম। ভাবছিলাম পারবো কি না? অনিন্দ্যদা বললেন উজান তোর মতোই হঠাৎ রেগে যায়, খুব গম্ভীর। লীনাদির গত দুটো ধারাবাহিকে আমার চরিত্রগুলো গম্ভীর, একটু কম কথা বলা। সেই কারণেই দর্শক ভাবে আমি সত্যিই খুব রাগী। আমার একটু অহংকার হতো আমি যা নই সেটা অভিনয় করতে পারছি বলে। সিনিয়র আর্টিস্ট থেকে বন্ধু বান্ধব সবাই বলে একবার যদি তোর আসল লুকটা সবাইকে দেখাতে পারতাম! সাবিত্রীদি, মাধবীদি এখনও বলেন তুই কি ছেলে আর লোকে তোকে কী ভাবে। যাক, অবশেষে আমার মুখে হাসি ফিরে এল।
• ধারাবাহিকের অঙ্কুরের সঙ্গে নিজের কতটা মিল খুঁজে পেলেন?
•• অঙ্কুর ধারাবাহিকে একজন ট্রাভেল গাইড। নতুন নতুন জায়গা এক্সপ্লোর করতে ভালবাসে। এক জন টুর গাইডের অনেক হেডেক থাকে। প্রত্যেক বাঙালির মতো ব্যক্তি জীবনে ঋষি কৌশিকও ঘুরতে ভালবাসে। একটাই তফাৎ আমার ঘোরাটা সব জায়গাতেই বাইকে করে। অঙ্কুরের মত সত্যিই আমি ঘুরতে ভালবাসি। 
• চরিত্রের জন্য আলাদা কোনও প্রিপারেশন? 
•• না, আলাদা করে তেমন কিছু নয়। তবে অঙ্কুরের পরার জন্য খুঁজে খুঁজে জ্যাকেট কিনতে হচ্ছে। 
• পার্নো মিত্রের সঙ্গে প্রথম কাজ করলেন? কেমন অভিজ্ঞতা?‌
•• হ্যাঁ। পার্নোর সঙ্গে আলাপ অনেক দিনের। তবে ওর সঙ্গে এই প্রথম কাজ। ভালো। সি ইজ হার্ড ওয়ার্কিং। সিনেমার থেকে ধারাবাহিকে কাজের পদ্ধতিটা একদম আলাদা। নতুন সিন প্রিপারেশন করার সময় খুব কম পাওয়া যায়। কারণ স্ক্রিপ্টটা পাওয়া মাত্রই শটে যেতে হবে। সি ইস ট্রাইং ভেড়ি হার্ড। 
• চরিত্র নাকি লীনাদির সঙ্গে কাজ বলে জন্য রাজি হলেন এই ধারাবাহিকটি করতে? 
•• যখন লীনাদি আমাকে কাস্ট করেছে, তখন আমার লীনাদির উপর ভরসা আছে। লীনাদির সঙ্গে দুটো ধারাবাহিকে প্রায় আট বছরের উপরে কাজ করেছি। দুটো কাজ করার পরে একে অপরের প্রতি একটা ভরসা থাকে। লীনাদি আমাকে কাস্ট করার সময় মাথায় রেখে দেয়
যে এটাকে পুল অফ করতে পারবে, আর লীনাদি কিছু একটা অফার করলে জানি যে আমাকে যোগ্য ভেবেই করেছেন।
• পুরুলিয়ায় শুটিংয়ের অভিজ্ঞতা?
•• পুরুলিয়ায় শুটিং মানেই সব সময় আনন্দের। প্রচন্ড ঠান্ডার মধ্যে রাতে খালি পায়ে শুটিংয়ের মজা আলাদা। বিশেষ করে দীপাবলী উৎসবের টেকের দিন ইউনিটের সকলে আনন্দ করেছি। শুটিংয়ের মাঝে যদি হাতি চলে আসে, এই ভয়টা ছিল। যদিও হাতি আসেনি।
• বড়পর্দা বা ওয়েব সিরিজের কাজ?
•• ছবির কাজ আপাতত না। ওয়েব এর জন্য একটা কাজ করলাম। আড্ডা টাইমস এর জন্য সৃজিত মুখোপাধ্যায়ের ‘‌ফেলুদা ফেরত’‌ এ ‘‌ছিন্নমস্তার অভিশাপ’‌ গল্পে কারাণ্ডিকার চরিত্রে। অন্যান্য গল্প পর্দায় উঠে আসলেও ছিন্নমস্তার অভিশাপ এই প্রথম পর্দায় তুলে ধরছেন পরিচালক।

ছবি: সঙ্কর্ষণ বন্দ্যোপাধ্যায় 

জনপ্রিয়

Back To Top