আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর রহস্য আরও জটিল হয়ে উঠছে। মামলা, পাল্টা মামলা, অভিযোগ, কাদা ছোড়াছুড়ি চলছেই। টাকা তছরুপের মামলা দায়ের করল এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট। এর মধ্যেই সুশান্তের মৃত্যুজট নিয়ে প্রথমবার প্রকাশ্যে মুখ খুললেন প্রেমিকা রিয়া চক্রবর্তী। বললেন, বিচারব্যবস্থার ওপর তাঁর আস্থা রয়েছে। সত্যিটা সামনে আসবেই। সোশ্যাল সাইটে শুক্রবার একটি ভিডিও পোস্ট করেছেন রিয়া। তাতে বললেন, ‘আমার বিষয়ে সংবাদমাধ্যমে ভয়ঙ্কর সব কথাবার্তা বলা হচ্ছে। এ বিষয়ে আমার আইনজীবী কিছু বলতে বারণ করেছেন। দেশের বিচার ব্যবস্থার ওপর যথেষ্ট আস্থা রয়েছে। আমি বিচার পাব। সত্যিটা অবশ্যই সামনে আসবে।’
এই ভিডিও পোস্টের কয়েক ঘণ্টা আগে শুক্রবার সকালে রিয়ার আর একটি ব্যক্তিগত মুহূর্তের ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। সেই ভিডিওতে হাসতে হাসতে রিয়া বলছেন, ‘‌আমি ডন। ছোটখাটো গুন্ডাদের কী করে নিয়ন্ত্রণ করতে হয় তা আমি জানি।’‌ কীভাবে ওই ভিডিওটি ভাইরাল হল তা জানা যায়নি। তবে যিনি ভিডিওটি তুলছিলেন, রিয়া তাঁকে বারবারই রেকর্ড করতে বারণ করছিলেন। ভিডিওতে সেটাও দেখা গেছে। 
এর মধ্যেই আজ রিয়াকে জেরা করতে তাঁর মুম্বইয়ের বাড়িতে যায় বিহার পুলিশ। কিন্তু তাঁর দেখা মেলেনি বলে খবর। তদন্তে পুলিশ আরও জানতে পেরেছে, সুশান্তের মোট তিনটি সংস্থার মধ্যে দু’টিতে অংশীদার ছিলেন রিয়া। ২০১৮ থেকে ২০২০ সালের মধ্যে তিনটি কোম্পানি খুলেছিলেন সুশান্ত। এর মধ্যে ‘ভিভিডরেজ রিয়ালিটিক্স প্রাইভেট লিমিটেড’ ২০১৯ সালের ১২ সেপ্টেম্বর চালু হয়। এই সংস্থারর মোট তিনজন ডিরেক্টর রয়েছেন— সুশান্ত সিংহ রাজপুত, রিয়া চক্রবর্তী এবং রিয়ার ভাই সৌভিক চক্রবর্তী। অন্য একটি কোম্পানি ‘ফ্রন্ট ইন্ডিয়া’ গত জানুয়ারিতে চালু হয়। সমাজসেবামূলক কাজের জন্যই তৈরি হয়েছিল ওই কোম্পানি। রিয়ার বিরুদ্ধে বিহার পুলিশের কাছে বয়ান দিয়েছেন সুশান্তের আর এক ঘনিষ্ঠ বন্ধু মহেশ শেট্টিও। তাঁর দাবি, রিয়াই বন্ধু এবং পরিবারের থেকে আলাদা করেছেন সুশান্তকে।   

জনপ্রিয়

Back To Top