Priyanka Chopra: আমার আত্মজীবনী কারও গসিপের বিষয়বস্তু হোক, তা চাইনি: প্রিয়াঙ্কা চোপড়া

আজকাল ওয়েবডেস্ক: করোনা আবহেই মুক্তি পেয়েছে প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার আত্মজীবনী 'আনফিনিশড'। কয়েকদিনের মধ্যেই মার্কিন মুলুকে দেশি গার্লের প্রথম বই বেস্টসেলার হয়ে গিয়েছে। স্বাভাবিকভাবেই তিনি উচ্ছ্বসিত। সম্প্রতি এক সাহিত্য উৎসবে উপস্থিত ছিলেন প্রিয়াঙ্কা। যেখানে তাঁর আত্মজীবনী সম্পর্কে এক প্রশ্নের উত্তরে অকপটে স্বীকার করেন কয়েকটি দিক। 

প্রিয়াঙ্কা শুরুতেই উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেন তাঁর আত্মজীবনী বেস্টসেলারের মধ্যে আসায়। তার পরেই তিনি বলেন, কয়েকটি রিভিউ দেখে তিনি অত্যন্ত ক্ষুব্ধ। কারণ তাঁর জীবনের গল্প নিয়ে সকলে গসিপ করবেন, এমনটা তিনি চাননি। প্রিয়াঙ্কার বক্তব্য, 'আমি কয়েকটি রিভিউ দেখেছি। যেখানে অনেকেই বলেছেন, কঠিন মুহূর্তের সম্মুখীন যে মানুষগুলোর জন্য হয়েছি তাঁদের নাম কেন লিখিনি। তাহলে কি ঘটনাগুলো সত্যি নয়! অনেকেই ভুলে যাচ্ছেন ওটা আমার আত্মজীবনী। কারও গসিপের বিষয়বস্তু হোক, তা চাইনি। কারা কী বলেছে, তার থেকেও গুরুত্বপূর্ণ বাধা পেড়িয়ে আমার পথচলা।' আত্মজীবনী প্রকাশের আগে এক সাক্ষাৎকারে প্রিয়াঙ্কা বলেন, 'লকডাউন আমাকে বাধ্য করেছে কলম ধরতে। তিরিশে আমার যতটা আত্মবিশ্বাস রয়েছে, কুড়ি বছরে তেমনটা ছিল না। তখন যেভাবে নিরাপত্তাহীনতায় ভুগতাম, সেসব অনেক দূরে ফেলে আমি এগিয়ে এসেছি। আমার মনে হয়েছে তার সবটা আমার তুলে ধরা উচিত।’‌ এখানেই বলিউডে, আমেরিকায় স্কুলে থাকাকালীন বিভিন্ন অভিজ্ঞতার কথা শেয়ার করেছেন প্রিয়াঙ্কা। এমনটাও উল্লেখ করেছিলেন, এক সিনেমার আগে এক পরিচালনক উত্তেজিত গানের দৃশ্যে নাচার সময় প্যান্টি খুলতে বলেন তাঁকে। তৎক্ষণাৎ সিনেমার সেট ছেড়ে বেরিয়ে আসেন তিনি। কেরিয়ারের ভয়ে গলা ছেড়ে প্রতিবাদ করতে পারেননি সেদিন। তবে সেদিন প্রতিবাদ না করতে পারায় আজও গুমরে মরেন তিনি। যদিও পরিচালকের নাম নেননি প্রিয়াঙ্কা।