জয়দীপ সেন: তখনও শ্রীদেবীর শোকে মূহ্যমান নন। রসিক টুইট করেছিলেন অধুনা প্রবীণ অভিনেতা ঋষি কাপুর— ‘তুমি আমার সময়ে এলে না’! কিন্তু সেটা তো বলিউডের অন্যতম সেরা রোমান্টিক নায়কের টুইটের শেষ লাইন। প্রথম লাইনগুলো হল, ‘আই প্রেডিক্ট হিউজ স্টারডম ফর দিস গার্ল। এত বাঙ্ময়, লাজুক, দুষ্টমিতে ভরা ভঙ্গি। অথচ পাশাপাশিই এত সরল। মাই ডিয়ার প্রিয়া, তোমার বয়সী সকলকে তুমি দৌড় করিয়ে ছাড়বে’।
বাস কেরলের ত্রিশূর জেলার পুনকুন্নামে। উচ্চতা ৫ ফুট ৪ ইঞ্চি। বয়স আঠেরো। শাহরুখ খান, রণবীর সিং, দীপিকা পাড়ুকোনের ভক্ত। অরিজিৎ সিংয়ের গাওয়া ‘চান্না মেরেয়া’ গানটি খুব পছন্দের। নিজের গানের গলাটিও বেশ সুরেলা। ক্লাসিক্যাল নৃত্যে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত। বাবার চাকরিসূত্রে একদা মুম্বইয়ে থাকতে হয়েছে বলে হিন্দিতে কোনও জড়তা নেই। শখের মডেলিংয়ের চেষ্টা করে থাকেন। আপাতত স্থানীয় বিমলা কলেজের বাণিজ্যের স্নাতক স্তরে পাঠরতা। কেন্দ্রীয় শুল্কদপ্তরের কর্মী প্রকাশ এবং  পৃথা বেরিয়ারের কন্যার জন্ম ১৯৯৯ সালের ১১ সেপ্টেম্বরে। ছোটভাইয়ের নাম প্রসিদ্ধ।
পরিবারের কাছে আদরের ‘রিয়া’। আর ভারতবাসীর কাছে সাড়াজাগানো কিশোর প্রেমের অভিজ্ঞান। তাঁর অভিনীত প্রথম ছবির ‘টিজারে’র একটি ৩০ সেকেন্ডের ভিডিও ইন্টারনেটে এমন ‘ভাইরাল’ হয়েছে যে, ইনস্টাগ্রামে তাঁর ‘ফলোয়ার’ বেড়েছে হু–হু করে। এতটাই যে, ফলোয়ার–সংখ্যায় তাঁর আগে একমাত্র ফুটবলার ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো। কোথায় ভেসে গিয়েছেন সানি লিওনি, দীপিকা পাড়ুকোন, আলিয়া ভাট, প্রিয়াঙ্কা চোপড়ারা!
চলতি বছরে ‘নি ভানম নান মাঝাই’ নামে একটি গানের ভিডিওতে প্রথম দেখা গিয়েছিল প্রিয়াকে। তারপরেই তাঁকে দেখা গেল ‘অরু আদর লাভ’ নামের মালয়ালি ছবিতে নবাগতা হিসেবে। একটি স্কুলে কিশোর প্রেমের উন্মেষ নিয়ে তৈরি ছবিতে মোট ছ’জোড়া প্রেমিক–প্রেমিকা আছেন। কিন্তু যত কান্ড প্রিয়াকে ঘিরে। অন্যদের মতো ‘অডিশন’ দিয়ে এই ছবিতে নির্বাচিত হয়েছিলেন। সিনেমায় অভিনয় করাটা স্বপ্ন ছিল বটে। কিন্তু একটা সিনেই এত লোক চিনে যাবেন, ভাবেননি অষ্টাদশী। ‘পরিচালক বলেছিলেন, এমন একটা কিছু করো, যাতে লোকের মনে থেকে যায়। চোখ মেরে ভ্রূ জোড়া নাচাতে বলেছিলেন। আমি ভাবলাম, করেই দেখি। আগে থেকে কোনও প্ল্যান ছিল না’, বলেছেন প্রিয়া। আরও বলেছেন, ‘হঠাৎ করে এই স্টার হয়ে যাওয়াটা বেশ লাগছে। কীভাবে সামলাব বুঝতে পারছি না। নতুন একটা ব্যাপার। কিন্তু খুব ভাল লাগছে। ইনস্টাগ্রামে প্রচুর প্রোপোজাল এসেছে। ছবি করার অফারও এসেছে। পিকু–র পরিচালক সুজিত সরকারও ফোন করেছিলেন। প্রথম ছবিটা মুক্তি পাক। তারপর এগুলো নিয়ে ভাবব।’
বলেছেন বটে গোটা ঘটনাপ্রবাহে তাঁর বাবা–মা ভয়ঙ্কর খুশি। কিন্তু মা পৃথার কথা শুনে মনে হচ্ছে, তাঁর গলায় উদ্বেগ—‘হঠাৎ পাওয়া এই পরিচিতি থেকে আমরা আমাদের মেয়েকে দূরে রাখতে চাই। তাই ওকে হস্টেলে পাঠিয়ে দিচ্ছি। ওকে ঘিরে হঠাৎ এত ভালোবাসা, উৎসাহের সঙ্গে মানিয়ে নিতে আমাদের বেশ অসুবিধেই হচ্ছে। মাঝেমধ্যে টুকটাক মডেলিং ছাড়া ও কোনওদিন অভিনয় করেনি। তবে ওর একটা ইচ্ছে ছিল সিনেমায় অভিনয় করার। সেইজন্যই ওকে অডিশনে নিয়ে গিয়েছিলাম। কিন্তু এই ভিডিওটা সব ওলটপালট করে দিয়েছে!’ 
মায়ের আরও দাবি, প্রিয়া কোনও সোশাল নেটওয়ার্কিং সাইটেও নেই। যদিও মেয়ে জানিয়েছেন, টুইটারে তিনি নেই ঠিকই। কিন্তু ঘটনার পরেই ফেসবুক প্রোফাইল খুলেছেন। ইনস্টাগ্রামে ছিলেন। কিন্তু তত ‘সক্রিয়’ ছিলেন না। এখন অবশ্য তাঁর ইনস্টাগ্রাম প্রোফাইল  ঘিরে সার্বজনীন উন্মাদনা চলছে। যে ইনস্টাগ্রাম প্রোফাইল থেকে পাশের চৌখস মডেলসুলভ ছবিটি সংগৃহীত। 
যাঁর চোখের মায়ায় গোটা দেশ নেশাগ্রস্ত, তাঁর নিজের জীবনে ‘বিশেষ’ কেউ নেই? কোনও ‘ক্রাশ’? ‘বয়ফ্রেন্ড’? 
একগাল হেসে প্রিয়ার বক্তব্য, ‘আমি মেয়েদের কলেজে পড়ি। ফলে বয়ফ্রেন্ড থাকার সম্ভাবনা নেই। আপাতত আমার সবচেয়ে বড় ক্রাশ সহ–অভিনেতা রোশন।’ এখন তিনি অভিনয়ের পাশাপাশি লেখাপড়াটা চালিয়ে যেতে চান। কিন্তু গুঞ্জন এই যে, জনৈক হৃষিকেশ সাজিকে ‘ডেট’ করছেন প্রিয়া। টিভির সাক্ষাৎকারে সে প্রসঙ্গ এড়িয়ে গিয়েছেন। তবে একের পর এক চ্যালেনের ক্যামেরার তাঁকে কখনও ক্লান্ত দেখায়নি। সাধে কি আর ঋষি কাপুর প্রকাশ্যে ভবিষ্যদ্বাণী এবং কপট হা–হুতাশ করেছেন?   
২ মার্চ, শুক্রবার মুক্তি পাবে ‘অরু আদর লাভ’। কাপুর বংশের নজর মিলে গেলে প্রিয়ার যাত্রা শুরু হল বলে! 

জনপ্রিয়

Back To Top