আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ ‘‌কঙ্গনা যদি রানি লক্ষ্মীবাই হন, তবে বিবেক ওবেরয় প্রধানমন্ত্রী মোদি!‌’‌ কঙ্গনাকে নিয়ে মিম শেয়ার না করে পারলেন না কিংবদন্তী অভিনেতা প্রকাশ রাজ।
দক্ষিণী ছবি থেকে তাঁর উত্থান। তারপরে বলিউডে একের পর এক খলনায়কের ভূমিকায় অভিনয় করে দুর্দান্ত অভিনেতা হিসেবে নাম কামিয়েছেন তিনি। কিন্তু তাঁর আরেকটি পরিচয়ও রয়েছে, যাঁর জন্যে তিনি তাঁকে কম হুমকি শুনতে হয়নি। সাম্প্রদায়িক ও মৌলবাদীদের বিরোধিতা করতে কখনও গলা কাঁপেনি তাঁর। প্রয়াত সাংবাদিক গৌরীলঙ্কেশের বন্ধুস্থানীয় ছিলেন তিনি। তাঁর হত্যার পরে প্রকাশ রাজ যেন আরওই নির্ভীক হয়ে গিয়েছেন। কঙ্গনা বিতর্কে এতদিন তিনি কোনও কথা বলেননি। কিন্তু তিনি তো চুপ থাকার মতো মানুষ নয়। তাই এবারে একটা মিম পোস্ট করে তাঁর অনেকগুলি বক্তব্যকে একজায়গায় করলেন। তাঁর রসিকতা যাঁরা ধরতে পারলেন, এবং তাঁর সঙ্গে সহমত পোষণ করেন, তাঁদের শেয়ারে ভরে গিয়েছে টুইটার। কিন্তু অন্যদিকে অনেক সমালোচনাও শুনতে হয়েছে তাঁকে। এরকম একটা বিষয় নিয়ে তিনি রসিকতা করছেন, তা মানতে পারেনি অনেকেই। এবং কঙ্গনার সমর্থকেরা সমস্ত ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন পোস্টের কমেন্ট বক্সেই। 
মিমটির বিষয়বস্তু হল, কঙ্গনা ‘‌মনিকর্ণিকা’ ছবিটি করার পর থেকেই নিজেকে জাতীয় নায়িকা বলে মনে করছেন। যেন তিনিই আসল রানি লক্ষ্মীবাই। যদি এই সূত্রকেই সত্য ধরে চলতে হয়, তবে আজ পর্যন্ত যে যে অভিনেতা ঐতিহাসিক ছবি বা বায়োপিকে অভিনয় করেছেন, তাঁরাও সেই চরিত্রগুলি। এভাবে কোলাজল করে দেখানো হয়েছে, দীপিকা পাড়ুকোন পদ্মাবতী, ঋত্বিক রোশন আকবর, শাহরুখ খান অশোক, অজয় দেবগান ভগৎ সিং, আমির খান মঙ্গল পাণ্ডে এবং সর্বশেষটি হল, বিবেক ওবেরয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। পোস্টের ওপরে হ্যাশট্যাগ দিয়ে লেখা, ‘‌এমনি জিজ্ঞেস করছি।’‌

জনপ্রিয়

Back To Top