Bollywood: তামিল, তেলুগু, ভোজপুরী অতীত! মালয়ালি ধারাবাহিকে আসছেন নীল-তিয়াশা?

নিজস্ব সংবাদদাতা: খুশি ধরছে না নীল ভট্টাচার্য, তিয়াশা লেপচার! স্টার জলসায় রমরমিয়ে চলছে তাঁদের অভিনীত ধারাবাহিক ‘বাংলা মিডিয়াম’। তার মধ্যেই খুশির খবর। এবার তাঁরা মালায়লি ভাষাতেও! বাংলা ছেড়ে এবার কি ভিন্ন ভাষার ধারাবাহিকেও জুটি বেঁধে অভিনয় করতে চলেছেন দু’জনে? টেলিপাড়া বলছে, প্রায় তেমনই। পুরোটা নয়। তামিল, তেলুগু, ভোজপুরীর পরে এবার আরও এক দক্ষিণী ভাষায় দেখা যাবে নীল-তিয়াশার ‘কৃষ্ণকলি’।

খবর, এই কথা জানার পরেই নাকি চওড়া হাসি দেখা গিয়েছে দুই অভিনেতার মুখে। বাংলা ভাষায় যাত্রা শুরু। সুশান্ত দাসের প্রযোজনায় বাংলাতেও জনপ্রিয় এই ধারাবাহিক। এক সময় রেটিং চার্টে টানা ‘স্লট লিডার’ ছিল ধারাবাহিকটি। ‘বাংলা সেরা’র শিরোপাও মাথায় উঠেছিল অনেক বার।

টানা চার বছর চলার পর বন্ধ হয় ধারাবাহিকটি। প্রায় এক বছর পরে ফের নতুন ভাষায় পুনর্নিমাণের খবর পেয়ে দারুণ খুশি ‘শ্যামা’, ‘নিখিল’। সে কথা তাঁরা জানিয়েওছেন। তাঁর মতে, পুরো টিমের জয় এটা। যত নতুন নতুন ভাষায় ধারাবাহিক তৈরি হবে ততই তার সাফল্য প্রমাণিত হবে।

‘কৃষ্ণকলি’র মতোই ধারাবাহিক ‘শ্রীময়ী’ও একাধিক ভাষায় তৈরি হয়েছে। লীনা গঙ্গোপাধ্যায়ের এই ধারাবাহিকে ‘শ্রীময়ী’ ওরফে ইন্দ্রাণী হালদার এক লড়াকু মেয়ের গল্প বলেছিলেন। দুই সন্তানকে নিজের পায়ে দাঁড় করানোর পরে স্বামী-সংসারের অত্যাচারের প্রতিবাদ করেছিল শ্রীময়ী। হাত ধরেছিল কলেজ প্রেমিক রোহিত সেনের। ‘শ্রীময়ী’ নিয়ে উন্মাদনাও দেখার মতো। ইতিমধ্যেই ধারাবাহিকটি সাতটি ভাষায় তৈরি হয়েছে। তার মধ্যে সবচেয়ে জনপ্রিয় হিন্দি পুনর্নিমাণ ‘অনুপমা’।      

আকর্ষণীয় খবর