আজকালের প্রতিবেদন: ৬৬তম জাতীয় পুরস্কারের আসরে চমক দিলেন বাংলার নবীন পরিচালক সাগ্নিক চট্টোপাধ্যায়। ‘‌ফেলুদা’কে নিয়ে তৈরি তাঁর তথ্যচিত্র ‘‌ফেলুদা:‌ ফিফটি ইয়ার্স অফ রয়েজ ডিটেকটিভ’‌ পেল সেরা নন ফিচার ফিল্মের স্বীকৃতি। আর পরিচালক সাগ্নিক নিজেও পেলেন সেরা নবীন পরিচালকের জাতীয় পুরস্কার। স্বাভাবিকভাবেই বেশ খুশি সাগ্নিক। জানালেন‌, ‘‌আমি বেশ খুশি। এটা আমার কাছে অভাবনীয়। এই পুরস্কার আমি উৎসর্গ করছি পৃথিবী জোড়া ফেলুদা ভক্তদের।’‌ 
পাশাপাশি সেরা বাংলা ছবির পুরস্কার পেল ‘‌এক যে ছিল রাজা’‌। শুক্রবার সৃজিত মুখোপাধ্যায় জানালেন, ‘‌এই ধরনের পুরস্কার দায়িত্ব আরও বাড়িয়ে দেয়। ‌আমি বেশ খুশি।’‌ অন্যদিকে ‘‌তারিখ’‌ ছবির জন্য সেরা সংলাপ রচনার জাতীয় পুরস্কার পেলেন চূর্ণী গাঙ্গুলি। পাশাপাশি বিশেষ জুরি পুরস্কার পেল সঙ্গীত পরিচালক ইন্দ্রদীপ দাশগুপ্তর পরিচালিত প্রথম ছবি ‘‌কেদারা’‌। যেখানে মুখ্য চরিত্রে অভিনয় করেছেন 
কৌশিক গাঙ্গুলি। 
‌স্বল্প বাজেটের ছবি। কিন্তু নিখুঁত চিত্রনাট্য, সুন্দর পরিচালনা ও জমজমাট অভিনয়ের জোরে সমালোচক থেকে দর্শক সবারই নজর কেড়েছিল পরিচালক শ্রীরাম রাঘবনের ক্রাইম থ্রিলার ‘‌অন্ধাধুন’‌। ৬৬তম জাতীয় পুরস্কারের আসরে সেই ছবিই ছিনিয়ে নিল সেরা হিন্দি ছবির শিরোপা। শুধু তাই নয় শ্রীরাম রাঘবনের এই ছবি জিতে নিল আরও দুটি জাতীয় পুরস্কার— সেরা চিত্রনাট্য ও সেরা অভিনেতা। এই ছবির জন্য যুগ্মভাবে সেরা অভিনেতা নির্বাচিত হয়েছেন আয়ুষ্মান খুরানা। তাঁর সঙ্গে সেরা অভিনেতা হিসেবে স্বীকৃতি পেলেন ‘‌উরি’‌ ছবির অভিনেতা ভিকি কৌশল। আর ৬৬তম জাতীয় পুরস্কারের আসরে সেরা ফিচার ফিল্ম–‌‌এর তকমা পেল গুজরাটি ছবি ‘‌হেলারাও’‌।
এবারের জাতীয় পুরস্কারের আসরে পরিচালক আদিত্য ধরের ‘‌উরি’‌ ছবির প্রাপ্তিও নেহাত কম নয়। এই ছবির জন্য যেমন ভিকি কৌশল যুগ্মভাবে পেয়েছেন সেরা অভিনেতার পুরস্কার তেমনি পরিচালক আদিত্য ধরও পেলেন সেরা পরিচালকের স্বীকৃতি। তার সঙ্গে ‘‌উরি’‌র প্রাপ্তি আরও দুটি জাতীয় পুরস্কার। সেরা সাউন্ড ডিজাইনের জন্য বিশ্বদীপ চট্টোপাধ্যায় ও সেরা আবহ সঙ্গীতের জন্য জাতীয় পুরস্কার পেলেন 
শাশ্বত সচদেবা।
সম্প্রতি ‘‌অন্ধাধুন’‌–‌‌এর পাশাপাশি নজর কেড়েছিল ‘‌বধাই হো’‌। এই ছবি পেল সেরা বিনোদনের জাতীয় পুরস্কার। আর এই ছবির অভিনেত্রী সুরেখা 
সিক্রি পেলেন সেরা সহ অভিনেত্রীর জাতীয় পুরস্কার।
নজর কাড়লেন সঞ্জয় লীলা বনশালীও। তাঁর ছবি ‘‌পদ্মাবৎ’–‌‌এর জন্য সেরা সঙ্গীত পরিচালকের পুরস্কার পেলেন তিনি। আর এই ছবির জন্যই সেরা প্লেব্যাক গায়কের জাতীয় পুরস্কার পেলেন অরিজিৎ সিং। এছাড়াও সেরা নৃত্য বা কোরিওগ্রাফির পুরস্কার পেল এই ছবিরই ‘‌ঘুমর’‌। আর চলচ্চিত্রের স্বার্থে উপযোগী পরিবেশ সৃষ্টির জন্য সেরা চলচ্চিত্র বান্ধব রাজ্যের স্বীকৃতি পেল উত্তরাখণ্ড।‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top