সঙ্কর্ষণ বন্দ্যোপাধ্যায়: মহাদেবের কন্যা মনসা। তবু তিনি স্বর্গের অন্য দেবদেবীদের মতো সম্মান পান না কেন তা মনসা মঙ্গল কাব্যে বর্ণিত আছে। এই দেবকন্যা মনসাকে কেন্দ্র করে আগেও ধারাবাহিক তৈরি হয়েছে। এবার মনসাকে কেন্দ্র করে আরও একটি ধারাবাহিক শুরু হয়ে গেল কালার্স বাংলায়। তবে এবার ধারাবাহিকে মনসার জন্ম বৃত্তান্ত থেকে মর্ত্যে তাঁর পুজো পাওয়ার কাহিনী সবটাই উঠে আসবে। উঠে আসবে তাঁর লড়াইয়ের কথা। পুরাণের সেই সাধারণ নারীর অসাধারণ হয়ে ওঠার লড়াই নিয়েই ধারাবাহিক ‘‌মনসা’‌।
দাসানি ২ স্টুডিওতে এই ধারাবাহিকের জন্যে গড়ে উঠেছে দেবলোক ও নাগলোক। শুটিং-‌এর ফাঁকে ‘‌মনসা’‌ ওরফে চাঁদনী সাহা জানালেন, ‘‌পৌরাণিক কোনও চরিত্রে এই প্রথম অভিনয় করছি। এই চরিত্রের জন্যে ওয়ার্কশপ করেছি খেয়ালী দস্তিদারের কাছে। আসলে এই ধারাবাহিক এক নারীর জীবন সংগ্রামের কাহিনী বলছে।’‌ ধারাবাহিকে মহাদেবের ভূমিকায় অভিনয় করছেন ইন্দ্রজিৎ মজুমদার। তিনিও জানালেন এই প্রথম কোনও পৌরানিক চরিত্রে অভিনয় করছেন। ধারাবাহিকের অন্যান্য চরিত্রে অভিনয় করছেন অদিতি চ্যাটার্জি, নবনীতা মালাকার, স্যামন্তক, সৌরভ চট্টোপাধ্যায়, রাজীব বোস প্রমুখ। 
পরিচালক সৃজিত রায় জানালেন, পুরাণ ও মনসামঙ্গল কাব্য অবলম্বনেই এই ধারাবাহিক গড়ে উঠেছে। এই ধারাবাহিকে নাগলোক ও দেবলোককের সেটকে একটা ফেয়ারি টেল-‌এর রূপ দেওয়ার চেষ্টা করেছি। আর প্রযোজক সুব্রত রায় জানালেন, এই ধারাবহিকে মনসা দেবী হলেও দর্শক তাঁকে একজন রক্তমাংসের নারী হিসেবেই দেখবেন। এক লড়াকু, আত্মমর্যাদা সম্পন্ন জেদি নারী রুপ পেয়েছে মনসায়।
ধারাবাহিকের সঙ্গীত পরিচালনা করেছেন দেবজিৎ রায়। আর ধারাবাহিক সম্পর্কে প্রাসঙ্গিক গবেষণা করেছেন শিবাশিস বন্দ্যোপাধ্যায়। শাশ্বতী ঘোষের কাহিনী ও প্রণিতা মুখার্জির চিত্রনাট্যে ধারাবাহিক ‘‌মনসা’‌ চলছে কালার্স বাংলায়।

জনপ্রিয়

Back To Top