Swastika Mukherjee: ‘শ্যামবর্ণ পাত্র’ খুঁজছেন স্বস্তিকা! আবার বিয়ের পিঁড়িতে নায়িকা?

নিজস্ব প্রতিবেদন: বৃহস্পতিবারের সকাল ফের স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায়ের দখলে।

তিনি সোশ্যাল মিডিয়ায় হন্যে হয়ে পাত্র খুঁজছেন! কটাক্ষ না সত্যিই বিয়ের পিঁড়িতে বসবেন তিনি? জানার উপায় নেই। তবে তাঁর পছন্দ-অপছন্দের কথা জেনে নড়ে বসেছেন অনুরাগীরা। পরিচালক অর্জুন দত্তের একাধিক ছবির নায়িকা তিনি। স্বস্তিকার পোস্ট দেখে তিনি তাই বড্ড খুশি। এ দিকে বিয়ের আমেজ ছড়িয়ে স্বস্তিকা ফটোশ্যুটও করে ফেলেছেন। বিয়ের জন্য দুটো বেনারসি বেছেছেন। একটি গাঢ় জামরঙা। তাতে জমাট জরির কাজ। নায়িকার হাতখোঁপায় টকটকে জোড়া লাল গোলাপ। অন্যটি রানি রঙের। জমিন জুড়ে সোনালি জরির সুক্ষ্ম কাজ। খোলা চুল। ব্লাউজের ধার ধারেননি তিনি। সঙ্গে মানানসই গয়না। সব মিলিয়ে স্বস্তিকা অনন্যা।

কেমন পাত্র চেয়েছেন নায়িকা? পোস্টের শুরুতে গোটা গোটা করে লিখেছেন, ‘গায়ের রঙ শ্যামবর্ণ হলেও চলবে। ফর্সা হতে হবে না।’ এই এক চাওয়াতেই ভাইরাল স্বস্তিকার পোস্ট। তিনি যে সব দিক থেকেই ব্যতিক্রম, এই পোস্ট আবারও প্রমাণ। তার পরেই ঝুলি থেকে বেরিয়ে এসে তাঁর বাকি চাওয়া। পাত্রকে অতি অবশ্যই ‘বই পড়তে ভালোবাসতে হবে। গান শুনতে ভালবাসতে হবে। সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়, বেড়াতে যেতে ভালোবাসতে হবে। ইংরাজি ব্যবহার না করে বাংলা ভাষায় পুরো ১০ মিনিট টানা কথা বলতে পারতেই হবে।’ পাশ্চাত্য পোশাকের পাশাপাশি চিরন্তনী বঙ্গ নারীর সাজেও সাজেন স্বস্তিকা। পাত্রের কাছেও তাই তিনি ষোলআনা বাঙালিয়ানাই আশা করেছেন।

স্বস্তিকার শেষ শর্ত, ‘আমায় না ভালবাসলেও চলবে। কিন্তু কুকুরদের মাথায় করে রাখতে হবে। এই সব গুণ থাকলে যোগাযোগ করবেন। বাকি যা যা পারেন না সেগুলো আমি সামলে নেব।’ অভিনেত্রীর সারমেয়প্রীতির কথাও কারও অজানা নয়। তিনি প্রায়ই সোশ্যাল মিডিয়ায় অসুস্থ, আশ্রয়হীন পথপশুদের জন্য বক্তব্য রাখেন। অনুরাগীদের থেকে সহযোগিতা চান। ফলে, তিনি যে শর্তে পাত্রের কাছে রাখবেন সেটা বলাই বাহুল্য। পুরুষ অনুরাগীরা ঝাঁপিয়ে পড়েছেন মন্তব্য বিভাগে। তাঁদের বক্তব্য, তাঁরা চোখে হারান অভিনেত্রীকে। এখন শুধুই স্বস্তিকার ইতিবাচক ইশারার অপেক্ষা! একই সঙ্গে সোশ্যাল মিডিয়া তোলপাড় আরও একটি প্রশ্নে। স্বস্তিকার ‘ভাল বন্ধু’ মীর আফসার আলি কি এই চাওয়া সম্বন্ধে জানেন? 
 
তাঁর সব শর্ত কেউ মানলে কথা এগোবেন স্বস্তিকা? এখানেই আসল রহস্য ফাঁস। নায়িকা পোস্টের শেষে জানিয়েছেন, সামনেই বিয়ের লগ্ন। সংবাদমাধ্যমের আবদারে বিয়ের কনে সেজেছেন তিনি। তারই ফটোশ্যুটের ঝলক ভাগ করে নিয়েছেন। যদি পাত্র খুঁজতেন তা হলে সম্ভবত এই ধরনের শর্তই রাখতেন তিনি।

আকর্ষণীয় খবর