আজকাল ওয়েবডেস্ক: ‌অভিনেত্রী রবিনা ট্যান্ডনের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করা হল। তাঁর বিরুদ্ধে ওড়িশার ভুবনেশ্বরের লিঙ্গরাজা মন্দিরে শুটিং করার অভিযোগ ওঠে। ওই মন্দিরে কোনও ধরনের ক্যামেরা নিয়ে প্রবেশ করা বেআইনি। মন্দির কর্তৃপক্ষ জানান, বলিউড অভিনেত্রী একটি বিজ্ঞাপনের শুটিংয়ের জন্য মন্দির চত্ত্বরে ক্যামেরা নিয়ে প্রবেশ করেন।  
যদিও রবিনা এই অভিযোগ অস্বীকার করে জানান, মন্দিরে কোনও ধরনের বিজ্ঞাপনের শুটিং চলছিল না। তিনি বলেন, ‘‌কোনও সংস্থা বা বিজ্ঞাপনের শুটিং চলছিল না। মন্দিরের ভেতর স্থানীয়রা এবং মন্দিরের সদস্য ও সংবাদ মাধ্যম তাঁদের মোবাইল ফোন দিয়ে ফটো তুলছিলেন। এমনকী তাঁরা আমার সঙ্গে সেলফিও তোলেন।’‌ অভিনেত্রী আরও জানান, মন্দিরে ফোন নিয়ে প্রবেশ করা যায় না এ বিষয়ে তিনি কিছুই জানতেন না। তাঁর দাবি, স্থানীয়রাও অভিনেত্রীকে এ বিষয়ে সতর্ক করেননি।

বরং তাঁরা ক্রমাগত অভিনেত্রীর সঙ্গে ফটো তুলতে ব্যস্ত ছিলেন। রবিনা ট্যান্ডন বলেন, ‘‌আমি বুঝতে পারছি সকলে যখন আমায় ঘিরে ফটো তুলতে ব্যস্ত ছিলেন, মন্দির কর্তৃপক্ষ ঠিক কতটা বিরক্ত হয়েছেন। আমি সত্যিই জানতাম না মন্দিরের ভেতর ফোন নিষিদ্ধ।’
সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ভিডিও ভাইরাল হওয়ার পরই গোটা ঘটনাটি প্রকাশ্যে আসে। ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, মন্দির চত্ত্বরে দাঁড়িয়ে রবিনা বিউটি টিপস দিচ্ছেন সবাইকে। এক ব্যক্তি সেটা মোবাইলে ভিডিও করছেন। রবিবার রবিনা ট্যান্ডন ভুবনেশ্বরের লিঙ্গরাজা মন্দির দর্শনের জন্য যান। ‌লিঙ্গরাজা মন্দির কর্তৃপক্ষ অভিনেত্রীর নামে এফআইআর দায়ের করেন পুলিসের কাছে। পুলিস ঘটনাটি খতিয়ে দেখছে। মন্দির সূত্রের খবর, শুধুমাত্র মন্দিরের সেবায়করাই মন্দিরের ভেতর ফোন নিয়ে যেতে পারেন।  

 

 

লিঙ্গরাজা মন্দিরে‌র ভেতর রবিনা।

 
 


 

জনপ্রিয়

Back To Top