বিনোদনের প্রতিবেদন:‌ প্রায় চুপিসাড়ে আসল ডুবুরিদের নিয়ে আস্ত একটা ছবি বানিয়ে ফেলেছেন কৃষ্ণেন্দু দত্ত। ছবির নামও ‘‌ডুবুরি’‌। সেই ছবি এবার কলকাতা চলচ্চিত্র উৎসবে জাতীয় স্তরের প্রতিযোগিতার অন্তর্ভুক্ত। স্বভাবতই খুব খুশি নবীন পরিচালক কৃষ্ণেন্দু। ঠিক এর আগেই ‘‌আজবডাঙ্গা’‌ বলে একটা ছবি তৈরি করেছেন তিনি। সে ছবি অবশ্য এখনও মুক্তি পায়নি।
‘‌ডুবুরি’‌-‌র ভাবনা কীভাবে মাথায় এল?‌ এখন চম্পাহাটিতে থাকেন কৃষ্ণেন্দু। ওখানেই একটি ল্যাম্পপোস্ট-‌এ দেখেন লেখা আছে—‘‌ডুবুরি খুঁজলে ফোন করুন। হারানো জিনিস খুঁজে দেব।’‌
কৌতুবল নিয়ে ফোন করেন কৃষ্ণেন্দু। এবং এক অন্য জগতের খোঁজ পান। পুকুরে, কুয়োয় কিছু হারিয়ে গেলে খুঁজে দেন ডুবুরিরা।
ডুবুরির সন্ধানে পৌঁছে অন্য এক জীবনের দেখা মেলে। তৈরি হয়ে ওঠে এক নতুন গল্প। মাতৃত্বের স্বাদ না পাওয়া গোলাপজাঙ্গার বছর তিরিশের বিধবা নীলুকে ঘিরে তৈরি হয় ছবির গল্প। তার একটা কানপাশা হারিয়ে গেছে পুকুরের জলে। ডুবুরি সনাতন আসে। সে কি খুঁজে পায় নীলুর কানপাশা?‌
নীলুকে ভালবাসে গোলাপডাঙ্গারই সুখেন। নীলু সেটা বোঝে এবং খেলায় সুখেনকে। আর একটা অদ্ভুত চরিত্র আসে এই ছবিতে, যে এক কিশোর, যার নাম কাকতাড়ুয়া। সে পাগলাটে এবং নীলুর আশেপাশে কাউকে সহ্যও করতে পারে না।
কানপাশা, নীলু, ডুবুরি সনাতন এবং চারপাশের মানুষজনকে নিয়ে জীবনের এক জটিল বৃত্তকে ছুঁতে চেয়েছেন কৃষ্ণেন্দু। এভিনয়েও বেছে নিয়েছেন মূলত নাটকের লোকজনকে। তাঁর দরকার ছিল চরিত্র, তারকা নয়। নীলুর চরিত্রে অভিনয় করেছেন মঞ্চের অভিনেত্রী পিয়ালী গুহ, ডুবুরি সনাতন হয়েছেন বাপ্পা মণ্ডল। সুখেন (‌‌দিব্যেন্দু বিশ্বাস)‌, কাকতাড়ুয়া (‌সৌরভ মণ্ডল)‌। অন্যান্য চরিত্রে আছেন নীলিম গঙ্গোপাধ্যায়, সোনালি বালা, ঋতিষা গাঙ্গুলি প্রমুখ। সঙ্গীত পরিচালনায় অতিশয় জৈন ও শুভময় ঘোষ। এমন একটা অন্যরকম ভাবনার ছবি প্রযোজনায় কৃষ্ণেন্দুর পাশে দাঁড়িয়েছেন ড.‌ অভীক ভট্টাচার্য ও অগ্নীশ্বর মিত্র। সাদা-‌কালো এই ছবির শুরু এবং শেষটুকু শুধু রঙীন। কৃষ্ণেন্দু জানালেন, আর একটা স্বপ্ন দৃশ্যও রঙীন করা হয়েছে। বিষয়ের প্রয়োজনেই এই ছবি সাদা কালোয় তুলেছেন কৃষ্ণেন্দু। এ ছবির গল্প, চিত্রনাট্য, সিনেমাটোগ্রাফিও তাঁর। অন্যভাবনা নিয়ে ছবি করার স্বপ্ন দেখা কৃষ্ণেন্দু ইতিমধ্যে নিভৃতেই শুরু করে দিয়েছেন তাঁর নতুন ছবির কাজ, যার নাম ‘‌মাছ’‌। এখানেও জল। জল থেকেই ক্রমশ ডাঙায় উঠছেন এই নবীন পরিচালক।
(‌‘‌ডুবুরি’ দেখা যাবে আজ নন্দন ২-‌তে সন্ধে সাড়ে ৭টায়।)‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top