আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ করোনা মহামারীর সময়ে মানুষের সেবা করে গিয়েছেন। সেই সোনু সুদের বিরুদ্ধেই থানায় অভিযোগ জানাল বৃহণ্মুম্বই পুরনিগম। মুম্বইয়ের জুহু এলাকায় অবস্থিত নিজের ছ’তলার বাড়িটি হোটেলে পরিণত করেছেন সোনু। আর তার জন্য নাকি বিএমসি–র অনুমতি নেননি বলিউড তারকা। 
পর্দায় বেশিরভাগ খলনায়কের চরিত্রে অভিনয় করলেও গত বছরের মার্চ মাস থেকে অসহায় মানুষের ত্রাতা হয়ে উঠেছেন সোনু সুদ। শুরু করেছিলেন পরিযায়ী শ্রমিকদের ঘরে ফেরানোর কর্মসূচির মাধ্যমে। পরে আবার সেই শ্রমিকদের অনেকের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থাও করেন। বহু পড়ুয়াকে ভার্চুয়াল ক্লাসের জন্য ল্যাপটপ, স্মার্টফোন পাঠিয়েছেন। শোনা গিয়েছে, মানুষের পাশে দাঁড়ানোর জন্য নাকি নিজের একাধিক সম্পত্তি বন্ধক রেখে ঋণ নিয়েছেন সোনু।
কিন্তু বিএমসি–র অনুমতি না নেওয়ায় আইনি বিপাকে পড়তে পারেন অভিনেতা। তবে সোনুর বিরুদ্ধে এই অভিযোগে ক্ষিপ্ত নেটিজেনদের একাংশ। কেউ দাবি করেছেন সোনুর এই বিল্ডিংটি হোটেল নয়, তা দরিদ্রদের আশ্রয়ের জায়গা। আর তাই বিএমসি–র সহ্য হচ্ছে না। কেউ আবার বিদ্রূপ করে লিখেছেন, জরিমানার অর্থ বৃহণ্মুম্বই পুরনিগমের বদলে যেন সঞ্জয় রাউতের অ্যাকাউন্টে দেওয়া হয়। যদিও সোনু বলছেন, তিনি অনুমতি নিয়েছেন। তাঁর কাছে প্রয়োজনীয় কাগজ রয়েছে। শুধুমাত্র মহারাষ্ট্রের কোস্টাল জোন ম্যানেজমেন্ট অথরিটির ক্লিয়ারেন্সের অপেক্ষায় রয়েছেন তিনি।
 

জনপ্রিয়

Back To Top