বললেন রানি মুখার্জি। সম্প্রতি কলকাতায় ‘‌দাদাগিরি’‌র আসরে এসেছিলেন তিনি। শুটিং শেষে তাঁর মুখোমুখি সঙ্কর্ষণ বন্দ্যোপাধ্যায়।

মর্দানি তাঁর শরীরে-সাজে নেই। মর্দানি তাঁর অভিনয়ে। বড় পর্দায়। ভক্তদের মনে। উজ্জ্বল উপস্থিতিতে। সাদা ঘেঁষা গোলাপি সিল্কের শাড়িতে চওড়া নেভি পাড়। তার সঙ্গে জরির বর্ডার। কপালে ছোট্ট টিপ। হাল্কা মেকআপ। চোখ ঢাকা ওভারসাইজড রোদচশমায়। চলে এলেন সোজাসুজি দাদাগিরির সেটে। আগামী মাসেই মুক্তি পাচ্ছে তাঁর নতুন ছবি ‘মর্দানি ২’। তাঁর অভিনয় নিয়ে উচ্ছ্বসিত স্বয়ং সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ও। দাদার শো-এর প্রতিযোগীদের পাশে দাঁড়িয়ে উৎসাহ জোগালেন বলিউডের অভিনেত্রী । সময় কাটালেন সৌরভের মঞ্চে। দাদার সঙ্গে কথায় কথায় মুখে চিরপরিচিত হাসির ঝিলিক ছড়িয়ে বলেই ফেলেন— দাদাগিরির সেটে এসে ছবির প্রচার শুরু করলেই সেই ছবি হিট। ‘‌মর্দানি ১’‌, ‘‌হিচকি’‌ র পর আবারও হাজির রানি মুখোপাধ্যায় ।
• প্রথমেই অভিনন্দন। সম্প্রতি দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার সবচেয়ে প্রভাবশালী অভিনেত্রীর সম্মান পাওয়ার জন্য।
•• থ্যাঙ্ক ইউ, থ্যাঙ্ক ইউ।
• ‘‌মর্দানি’ ছবিতে নারী পাচারের মতো ঘটনা তুলে ধরেছিলেন। এ বারের বিষয় ধর্ষণ। এই ধরনের বিষয় বাছার নির্দিষ্ট কারণ আছে?
• দেখুন, যখন ‘মর্দানি’ করেছিলাম, ওটা দিল্লির নির্ভয়াকাণ্ডের খুব কাছাকাছি সময় হয়েছিল। তখন গোটা দেশ রাগে থরথর করে কাঁপছে। তখন ব্যক্তিগতভাবে আমারও মনে হয়েছিল, দেশের নারী সমাজকে এখনই সচেতন করা উচিত। সচেতনতা বাড়লে এই ধরনের ঘটনা অনেকটা এড়ানো সম্ভব। এই পরিস্থিতিতে জন্ম নিয়েছিল ‘মর্দানি’। এরপর এল ‘হিচকি’। ওখানে ছিল দুটো বিষয়— এক, ছাত্র-শিক্ষক সম্পর্ক এবং দুই, টুরেটস সিনড্রোম। এই ছবির আগে তো ভারতের অনেকেই এই রোগ সম্বন্ধে জানতেন না। এবার ‘মর্দানি-২’। এখন ছোট ছোট ছেলেরা অপরাধ করছে। এই ছবিতে আমরা সেটাই দেখিয়েছি। এই ছবির ভিলেন ২১ বছর বয়সি একটি ছেলে। দর্শক ‘মর্দানি’তে আমার শিবানী শিবাজি রায়ের চরিত্রটা পছন্দ করেছিলেন। সকলে এই চরিত্রটা আবার পর্দায় দেখতে চেয়েছিলেন। আবার একটা ভালো সামাজিক বার্তা দেওয়ার মতো গল্প পাওয়া গিয়েছে, তাই নতুন এই ছবি।
• ছবিতে শিবানী শিবাজি রায়ের চরিত্রে কোনও পার্থক্য থাকছে?
•• প্রথম ছবিতে আমি অভিনয় করেছিলাম ক্রাইম ব্র্যাঞ্চ অফিসারের চরিত্রে। সাধারণ পোশাকে সাধারণ মানুষের সঙ্গে মিশে যেতে পারতাম। আর এবার আমাকে দেখা যাবে সুপারিনটেন্ডেন্ট অব পুলিস অফিসারের চরিত্রে। উর্দি পরতে হয়। দায়িত্ব আলাদা হয়ে যায়। তাই কিছু নিয়মবিধি মানতে হয়েছে। তবে ইমোশনালি শিবানী শিবাজি রাও একই রকম আছে। পদমর্যাদার পার্থক্য হওয়ায় আচরণে যতটা তফাত হওয়া উচিত, ততটা পার্থক্য রয়েছে।
• ‘‌মর্দানি-২’-এর প্রচার কি এই শহর থেকেই শুরু হল?
•• হ্যাঁ। আজই এখানে দাদাগিরির  সেট থেকে শুরু করলাম।
• দাদাগিরির সেটেই বললেন এই সেট আপনার কাছে লাকি।
•• খুবই লাকি। এর আগে ‘মর্দানি’ আর ‘হিচকি’ রিলিজের সময় এসেছিলাম। এবার ‘মর্দানি-২’-এর জন্য এলাম। এর আগে দু’বারই ছবি হিট হয়েছিল। তাই এবারও আশা করছি, দাদাগিরিতে প্রচার শুরু করে আবারও ছবি হিট হবে।
• ‘‌মর্দানি ২’‌ এর পরিচালক বদল হয়েছে?
•• ‘‌মর্দানি’‌র পরিচালক ছিলেন প্রদীপ সরকার। এবার পরিচালনা করছেন ‘মর্দানি’র গল্পকার গোপী।
• এখনকার ছবিতে কনটেন্ট ই আসল হিরো। স্টারডমটা নয়। এক জন স্টার হয়ে এটা বিশ্বাস করেন?
•• কনটেন্ট তো চিরকালই হিরো ছিল। সুদূর অতীতেও যেসব ছবি বক্স অফিসে ইতিহাস তৈরি করেছে, দেখবেন সেটা কনটেন্টের জোরেই করেছে। ভালো কনটেন্ট ছাড়া কেবল মাত্র গ্ল্যামার ও এন্টারটেনমেন্ট দিয়ে ছবি হিট করানো সম্ভব নয়।
• যে ধারার ছবিতে দর্শক রানী মুখোপাধ্যায় কে চেনে সেই ধারার ছবিতে আবার কবে পাওয়া যাবে?
•• দর্শকরা, যারা ওই ধরনের ছবি পছন্দ করেন, তাঁদের কথা মাথায় আছে। ইচ্ছা আছে, এবার ওই ধরনের একটা মজার ছবি করব। তবে, ওই আগেই বললাম গল্প আর চরিত্রটা পছন্দ হতে হবে আগে।
• ‘‌বিয়ের ফুল’‌ ছবির পর আর বাংলা ছবি করলেন না কেন?
•• এটা আমার প্রথম ছবি ছিল। বাবা পরিচালনা করেছিলেন। আজকে খুব নস্টালজিক হয়ে পড়েছিলাম দাদাগিরির সেটে ছবির গানটা শুনতে শুনতে। বাংলা ছবি করার অফার নিয়েই কেউ এল না (হাসি) করব কি করে? এখানেই বলছি ভাল গল্প এবং চরিত্র পেলে নিশ্চয়ই বাংলা ছবিতে কাজ করব।
• পরিচালনায় আসবেন?
•• জানি না, ভবিষ্যতে কী হবে। নায়িকা হতে চাইনি, নায়িকা হয়ে গেলাম। দেখা গেল, কোনওদিন হয়তো পরিচালনায় এসে গেলাম।
• দাদাগিরির সেটে আপনার জন্য ফুচকা ওয়ালা এনে আপনাকে সারপ্রাইজ দেওয়া হল। ফুচকা আপনার কতটা প্রিয়?
•• কলকাতার ফুচকা আমার সব সময় প্রিয়। এখানকার রসগোল্লা, সন্দেশও প্রিয়। আমি সত্যিই ভাবতে পারিনি এমন সারপ্রাইজ পাবো। থ্যাংকস টু দাদা এবং থ্যাংকস টু দাদাগিরির সকলকে।
• কলকাতা থেকে বাড়ির জন্য নিশ্চয় রসগোল্লা নিয়ে যাচ্ছেন?
•• রসগোল্লা আর সন্দেশ প্রতিবারই নিয়ে যাই। সকালে কলকাতায় আসছি শুনে  মেয়ে আদিরা বায়না করেছে রসগোল্লা সন্দেশ আনার। এবারতো আরও বেশি করে নিয়ে যেতে হবে।
ছবি : সঙ্কর্ষণ বন্দ্যোপাধ্যায় ‌

জনপ্রিয়

Back To Top