আজকাল ওয়েবডেস্ক: ‌মুম্বইয়ের ‘ন্যাশনাল গ্যালারি অব মডার্ন আর্ট’–এর বক্তৃতার মধ্যেই বাধা দেওয়া হল অভিনেতা, প্রযোজক ও চিত্রশিল্পী অমল পালেকরকে। ফলে নরেন্দ্র মোদি জমানায় মতপ্রকাশের স্বাধীনতার ওপরে আঘাত নিয়ে ফের প্রশ্ন উঠল। 
শনিবার মুম্বইয়ের ওই গ্যালারির এক প্রদর্শনীর শুরুতে প্রয়াত শিল্পী প্রভাকর বারওয়ের স্মৃতিচারণ করতে গিয়ে অমল বলেন, ‘এক সময়ে ন্যাশনাল গ্যালারিতে কোন প্রদর্শনী হবে তা নিয়ে স্থানীয় শিল্পীদের একটি কমিটি সিদ্ধান্ত নিত। একতরফা ভাবে সেই সিদ্ধান্ত নেওয়ার অধিকার নিজেদের হাতে নিয়েছে কেন্দ্র।’ সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া ভিডিওতে দেখা গিয়েছে অভিনেতা কেন্দ্রের সংস্কৃতি মন্ত্রীকে কটাক্ষ করে বক্তব্য করছিলেন। অমল পালেকরের বক্তব্যের মধ্যেই আপত্তি জানান শিল্পী সুহাস বাহুলিকর ও ন্যাশনাল গ্যালারির বর্তমান কর্ণধার অনীতা রূপাভাতরম। পালেকর বলেন, ‘আপনারা কি আমার বক্তৃতার বিষয়বস্তু নিয়ন্ত্রণ করতে চাইছেন?’ অনীতার বক্তব্য, ‘শিল্পীদের কমিটি ভাঙা  নিয়ে আমাদের উদ্বেগের কথা আগেই সরকারকে জানানো হয়েছে।

’ এরপর তিনি জানান যে, এখন এ বিষয়ে কথা না বলে বরং অনুষ্ঠানের বিষয়বস্তু নিয়ে কথা বলা হোক। অনীতা রূপাভাতরম বলেন, ‘এই অনুষ্ঠান প্রভাকর বারওয়েকে নিয়ে। তাঁকে নিয়ে কথা বলাটাই শ্রেয়।’
যদিও বাধা পাওয়ার পরও থামতে দেখা যায়নি অমল পালেকরকে। তিনি জানিয়েছেন যে, লেখক নয়নতারা সেহগাল তাঁকে মারাঠি সাহিত্য সম্মেলনে বক্তব্য করার জন্য আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন‌‌। কিন্তু শেষ মূহুর্তে এসে তিনি অমল পালেকরকে আসতে না করে দেন। সেই প্রসঙ্গ টেনে অভিনেতা জানান, একই পরিস্থিতি এখানেও সৃষ্টি হয়েছে। ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ করে মুম্বইরের কংগ্রেস জানিয়েছে যে এটা খুবই হতাশাজনক ঘটনা। বরিষ্ঠ অভিনেতা অমল পালেকরকে বক্তৃতা করার সময় বাধা দেওয়া হয়, তাঁকে তাঁর বক্তব্য করতে দেওয়া হয় না।   


 

জনপ্রিয়

Back To Top