Jacqueline Fernandez: স্বস্তির হাসি! ২০০ কোটি আর্থিক তছরুপ মামলায় অন্তর্বর্তী জামিন জ্যাকলিনের

আজকাল ওয়েবডেস্ক: অবশেষে স্বস্তি! ২০০ কোটি আর্থিক তছরুপ মামলায় অন্তর্বর্তী জামিন পেলেন অভিনেত্রী জ্যাকলিন ফার্নান্ডেজ।

ইডি দাবি করেছিল, এই আর্থিক তছরুপের মামলায় অন্যতম অভিযুক্ত জ্যাকলিন। সে কারণেই আর্থিক তছরুপের মামলায় চার্জশিটে অভিযুক্তদের তালিকায় অভিনেত্রীর নাম উল্লেখ করেছিল তদন্তকারীরা। এই অভিযোগের বিরুদ্ধে সরব হয়েছিলেন অভিনেত্রী। ইডির দাবি মিথ্যে বলে পাল্টা অন্তর্বর্তী জামিনের জন্য দিল্লির একটি আদালতে আপিল করেছিলেন তিনি। সেই জামিন মঞ্জুর হল সোমবার। আদালত চত্বরে তাঁকে ঘিরে ছিলেন আইনজীবীরা। এর মাঝেই স্বস্তির হাসি দেখা গেল জ্যাকলিনের মুখে। 

২০০ কোটি আর্থিক তছরুপের মামলায় মূল অভিযুক্ত সুকেশ চন্দ্রশেখরের সঙ্গে জ্যাকলিনের সম্পর্কের কথা আগেই ফাঁস করেছিল ইডি। সেই সময় এই মামলায় অন্যতম সাক্ষী ছিলেন জ্যাকলিন। এবার তাঁকেও অভিযুক্তদের তালিকায় রাখল ইডি। জুন মাসের শেষেও ইডির ম্যারাথন জিজ্ঞাসাবাদের মুখে পড়েছিলেন জ্যাকলিন। দীর্ঘ জেরার পর জানা গিয়েছিল, সুকেশের থেকে ১০ কোটি টাকা আত্মসাৎ করেছেন অভিনেত্রী। যার মধ্যে ৭ কোটি টাকারও বেশি সম্পত্তি ইতিমধ্যেই বাজেয়াপ্ত করেছে ইডি। 

তদন্তের পর ইডির তরফে জানা গিয়েছে, তোলাবাজির টাকা দিয়েই জ্যাকলিনের মন পেতে মরিয়া হয়ে উঠেছিলেন সুকেশ। তোলাবাজির ২০০ কোটি টাকা থেকে কোটি টাকার উপহার জ্যাকলিন এবং তাঁর পরিবারের সদস্যদের দিয়েছেন তিনি। এর মধ্যে ৭.১২ কোটি টাকা জ্যাকলিনের নামে ফিক্সড ডিপোজিট এবং ১৫ লক্ষ টাকা এক চিত্রনাট্যকারকে জ্যাকলিনের হয়ে সুকেশ দিয়েছিলেন বলেই সূত্রের খবর। 

ইডির দাবি, ২০০ কোটি টাকা চুরির পরেই তার থেকে ৫.৭১ কোটির সম্পদ জ্যাকলিনকে উপহার দিয়েছিলেন সুকেশ। জ্যাকলিনের পরিবারের জন্য ১,৭৩,০০০ মার্কিন ডলার খরচ করেছেন সুকেশ। এছাড়াও দামি গাড়ি, ৯ লক্ষের বিড়াল, ৫২ লক্ষের ঘোড়া, দামি পাথরের গয়নাও জ্যাকলিনকে উপহার দিয়েছিলেন সুকেশ। ইডির কথায়, এই সম্পদের অর্থ বেআইনি পথে উপার্জন করেছেন সুকেশ। তাই জ্যাকলিনের ৭ কোটির সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। 

আকর্ষণীয় খবর