‌আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ কর্ণী সেনার প্রতিবাদের জেরে যদি কারও লাভ হয়ে থাকে, তিনি সঞ্জয়লীলা বনশালি। সেই সেট ভাঙা থেকে শুরু। এরপর মুক্তি নিয়ে টালবাহানা। সেন্সর বোর্ডের  হস্তক্ষেপ। সুপ্রিম কোর্টে মুক্তির ওপর স্থগিতাদেশের আর্জি এবং নাকচ। পদ্মাবত ঘিরে কয়েক মাস ধরে এসব প্রত্যক্ষ করেছে দেশবাসী। আর ততই বেড়েছে সিনেমা ঘিরে আগ্রহ। সিনেমার প্রযোজক সংস্থা ভায়াকম জানিয়েছে, দেশে অন্তত ৪ হাজার স্ক্রিনে চলছে পদ্মাবত। এখনও পর্যন্ত ১০ লক্ষ দর্শক পদ্মাবত দেখেছেন। দিনের শেষে সংখ্যাটা বাড়তে বাড়তে ৩৫ লক্ষে পৌঁছবে বলে আশা করছেন প্রযোজক। 
সিনেমা রিলিজের পরেও করনি সেনার গুণ্ডামি কমছে না। যে কোনও উপায়ে পদ্মাবত দেখানো আটকে দিতে বদ্ধপরিকর তারা। রাস্তায় নেমে বাসে ভাঙচুর চালানো হয়েছে গুরুগ্রামে। পোড়ানো হয়েছে গাড়ি। রেহাই পায়নি পড়ুয়াদের স্কুলবাস। যদিও তার জেরে ১৮ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। গুরুগ্রাম ও নয়ডায় রবিবার পর্যন্ত স্কুল বন্ধ থাকবে। হুমকি দেওয়া হচ্ছে হল মালিক ও সাধারণ মানুষকে। পরিস্থিতি মোকাবিলায় কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক কোনও ব্যবস্থা নিতে পারে বলে বিভিন্ন মহলের দাবি ছিল। এখনও পর্যন্ত যা খবর, আইন–শৃঙ্খলা রাজ্যের ব্যাপার জানিয়ে হাত ধুয়ে ফেলতে চাইছে কেন্দ্রীয় সরকার। চেন্নাইতেও বিক্ষোভ ছড়িয়েছে। সেখানে বিক্ষোভে নেতৃত্ব দিচ্ছে শ্রীরাম সেনা। সত্যম থিয়েটারের বাইরে বিক্ষোভ দেখানোর সময় আটজনকে আটক করা হয়েছে। 
মথুরায় রেল অবরোধ করা হয়। জম্মুর ইন্দ্রা সিনেমা হলের টিকিট কাউন্টারে ইট ছুঁড়ে কাচ ভেঙে দেওয়া হয়েছে। উত্তরপ্রদেশের সীতাপুরে এক হল মালিককে মারধর করা হয়েছে। ঋষিকেশে এক হলের বাইরে বজরং দলের সমর্থকদের পুলিসের ধস্তাধস্তি হয়েছে। যদিও মধ্যপ্রদেশ, রাজস্থান, গুজরাট এবং বিহারে ‘‌পদ্মাবত’‌–‌এর প্রদশর্ন বন্ধ। ছবির প্রদর্শনে যাতে বাধা না আসে, তাই সিনেমা হলগুলির নিরাপত্তা জোরদার করেছে মুম্বই পুলিস। মুম্বইয়ে শতাধিক কর্ণী সেনা–‌সমর্থককে পুলিস নিজেদের হেপাজতে নিয়েছে। অশান্তি রুখতে সিনেমা হলের বাইরে তো বটেই, ভেতরেও পর্যাপ্ত পুলিস মোতায়েন করা হয়েছে।
মুম্বই পুলিস জানিয়েছে, বিক্ষোভকারীদের বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে। দিন কয়েক আগেই ছবির মুক্তি নিরাপদ করার জন্য চলচ্চিত্র নির্মাতারা মুম্বই পুলিসের দ্বারস্থ হয়েছিলেন। শুধু সিনেমা হল বা মাল্টিপ্লেক্সের নিরাপত্তাই নয়, ছবির নির্দেশক সঞ্জয় লীলা বনশালি, অভিনেত্রী দীপিকা পাডুকোন এবং অভিনেতা রণবীর সিংয়ের বাড়ির নিরাপত্তায় পুলিস মোতায়েন করা হয়েছে। এদিকে, অশান্তি এড়াতে রাজস্থানের চিতোরগড় দুর্গ বন্ধ রাখা হয়েছে। ‌যদিও সিনেমা দেখার পরে দর্শকদের প্রাথমিক প্রতিক্রিয়া, বিতর্কের কোনও অবকাশই নেই। এদিকে প্রতিবাদে জয়পুর সাহিত্য উৎসবে যাবেন না কবি ও গীতিকার সেন্সর বোর্ডের চেয়ারম্যান প্রসূন জোশী। এদিকে ক্ষত্রিয় মহাসভা নামে একটি সংগঠন ঘোষণা করেছে, দীপিকা পাড়ুকোনের নাক কাটতে পারলে পাঁচ কোটি টাকা পুরস্কার দেওয়া হবে। ‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top