আজকাল ওয়েবডেস্ক: এবারে কন্নড়‌ ইন্ডাস্ট্রির অন্য দুই তারকাকে তলব করল কর্নাটক পুলিশ। বিষয়, সেই মাদকযোগ।
কন্নড় চলচ্চিত্র জগতেও জোরালো হচ্ছে মাদকযোগের তদন্ত। এবারে তলবের ডাক পড়ল কন্নড় ছবির প্রথম সারির অভিনেতা দিগন্ত ও ঐন্দ্রিতা রায়ের। বুধবার তাঁদের জেরা করবে পুলিশ। এর আগে মাদক পাচারের দায়ে অভিনেতা রাগিণী দ্বিবেদীকে গ্রেপ্তার করে বেঙ্গালুরুর সেন্ট্রাল ক্রাইম ব্রাঞ্চ (‌সিসিবি)‌। একই অভিযোগে গ্রেপ্তার হন আরেক কন্নড় অভিনেতা সঞ্জনা গলরানি। তার আগে গ্রেপ্তার হয়েছেন রাহুল শেট্টি নামের সঞ্জনার এক নির্মাণ–ব্যবসায়ী বন্ধু। তিনি কন্নড় ছবির কেউকেটাদের পার্টিতে মাদক সরবরাহ করতেন। মঙ্গলবার বেঙ্গালুরুর হেব্বল হ্রদের কাছে পাঁচ একর জমিতে বেঙ্গালুরু পুলিশ অভিযান চালায়। প্রয়াত রাজনীতিবিদ জীবরাজ আলভার স্ত্রী নন্দিনী আলভার নামে সেই জমি। সেখানে সুইমিং পুল সহ একটি বিরাট রিসর্ট রয়েছে। তদন্তকারীরা সন্দেহ করছেন, এসমস্ত অভিজাত জায়গায় ‘‌ড্রাগ পার্টি’‌– এর আয়োজন করা হয়। তাঁদের ছেলে আদিত্য আলভা অন্যতম অভিযুক্ত হলেও এখনও পর্যন্ত তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়নি। পুলিশ মাদকযোগের তদন্ত শুরু করার পর থেকেই আদিত্য আলভা নিখোঁজ।
৫ সেপ্টেম্বর কর্ণাটকের বিভিন্ন জায়গায় অভিযান চালিয়ে পুলিশ ২.‌১ কেজি চরস ও ২ কেজি গাঁজা উদ্ধার করেছে। গ্রেপ্তার হয়েছে তিন পাচারকারী। এরা সবাই কেরলের লোক। পুলিশ এখন চেষ্টা করছে কীভাবে এত মাদক রাজ্যে ঢুকছে এবং কাদের মাধ্যমে তা ছড়িয়ে পড়ছে তার রহস্যভেদ করতে।
কর্ণাটকের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বাসবরাজ বোম্মাই মঙ্গলবার সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, ‘‌যাঁরাই এই চক্রের সঙ্গে জড়িত, তাঁরাই আমাদের কাছে অপরাধী। যে কোনও পরিবার থেকেই তাঁরা আসুন না কেন, তাঁদের সাজা হবে।’‌

জনপ্রিয়

Back To Top