‘‌রাতে ঘুম হয়নি’‌, গতকাল বিরোধীদের ডামাডোল নিয়ে সংসদে কেঁদে ফেললেন বেঙ্কাইয়া নাইডু

আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ ১৯ জুলাই শুরু হয়েছে বাদল অধিবেশন।

পেগাসাস নজরদারি ইস্যুতে রোজই ডামাডোল চলছে সংসদে। বিরোধীদের বিক্ষোভে মুলতুবি হচ্ছে অধিবেশন। মঙ্গলবার সেই বিশৃঙ্খলা চরমে পৌঁছয়। টেবিলে উঠে পড়েন কয়েক জন বিরোধী সাংসদ। সেই নিয়ে এদিন রাজ্যসভায় বিবৃতি দিতে গিয়ে কেঁদে ফেললেন বেঙ্কাইয়া নাইডু। বললেন, গতকাল সারা রাত ঘুম হয়নি তাঁর।
পেগাসাস নজরদারি কাণ্ডে মঙ্গলবারও উত্তপ্ত হয়ে ওঠে রাজ্যসভা। বিরোধী সাংসদরা রাজ্যসভার কেন্দ্রস্থলে বসে থাকে সরকারি কর্মীদের টেবিলে নেমে আসেন। কালো কাপড় দেখান। সেসব টেবিলের ফাইল লণ্ডভণ্ড করে দেন। অনেক সাংসদ আবার টেবিলের ওপর উঠে বসেন। কেউ কেউ টেবিলে দাঁড়িয়ে স্লোগান দিতে থাকেন। 
সূত্রের খবর, এই সাংসদের বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ করার কথা ভাবছে মোদি সরকার। সংসদীয় এথিকস কমিটির কাছে এই নিয়ে অভিযোগ করা হবে বলে খবর। এই প্রসঙ্গেই বুধবার উপরাষ্ট্রপতি বেঙ্কাইয়া নাইডু বললেন, ‘‌গতকাল যেভাবে এখানকার পবিত্রতা নষ্ট করা হয়েছে, সেই নিয়ে আমি দুঃখিত। কোনও কোনও সাংসদ টেবিলের ওপর উঠে বসেন। কেউ কেউ আবার টেবিলের ওপর উঠে দাঁড়ান। এসব আরও বেশি করে চোখে পড়েছে।’
এর পরেই ধরে আসে নাইডুর গলা। তিনি বলেন, ‘‌এ ধরনের কাজকে ধিক্কার জানানো এবং ক্ষোভ প্রকাশের ভাষা নেই আমার। ‌গতকাল সারা রাত ঘুমোতে পারিনি।’‌ এর পর তিনি বেশ কিছুক্ষণ থেমে বললেন, গতকাল যা হল, তার কী করাণ বা এর পিছনে প্ররোচনা কী, তা ভাবতে বেগ পেতে হচ্ছে আমায়।’‌ 
বিরোধী সাংসদ জয়রাম রমেশ যদিও বললেন, উপরাষ্ট্রপতি সরকারের হয়েই কথা বলছেন। নিরপেক্ষভাবে কথা বলছেন না। 

Presiding officers in Parliament are supposed to be neutral umpires, not partisan players. They cannot present a totally one-sided picture of goings on in the House and further aggravate the situation. Misplaced emotion leads to commotion.

— Jairam Ramesh (@Jairam_Ramesh) August 11, 2021

আকর্ষনীয় খবর